বঙ্গবন্ধু আদর্শের সৈনিক এ.টি.এম. শামছুজ্জামান মাসুদ জনসেবাই যার ধ্যান জ্ঞান

বঙ্গবন্ধু আদর্শের সৈনিক এ.টি.এম. শামছুজ্জামান মাসুদ জনসেবাই যার ধ্যান জ্ঞান

সৈয়দ সময়, নেত্রকোণা:  আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান বঙ্গবন্ধু আদর্শের সৈনিক এ.টি.এম. শামছুজ্জামান মাসুদ। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে এলাকার উন্নয়নের জনগণের পাশে থেকে কাজ করে যাচ্ছেন। জনসেবাই তার জীবনের ব্রত। তার বাবা আব্দুল কদ্দুস বঙ্গবন্ধু আদর্শের সৈনিক ছিলেন। ময়মনসিংহ জেলার গৌরিপুর উপজেলার চার নং  মাওহা ইউনিয়নের মাওহা বড়ইকান্দা গ্রামে তার বাড়ি। পৈত্রিক ব্যবসার সুবাদে নেত্রককোণা জেলা শহরে অজহর রোড পাট পট্টিতে পারিবারিক ভাবে শিশু বেলা কাটে।  ছাত্র অবস্থায় বাংলাদেশ ছাত্রলীগ রাজনীতির সাথে সক্রিয় ভাবে আওয়ামীলীগ রাজনীতি শুরু করে এখনো রাজনীতিতে জড়িত আছেন।

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেত্রকোণা জেলা শাখার সাবেক সদস্য, ২০১৩ সালে মাওহা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নির্বাচিত সাবেক সভাপতি ও ২০১৪ থেকে ২০১৮ সাল পর্যন্ত মাওহা উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১৩ সাল থেকে মাওহা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ রাজনীতির সঙ্গে জড়িত হন। বর্তমানে ৪ নং মাওহা ইউনিয়নের বাংলাদেশ কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামীলীগের সম্পানিত সদস্য এবং গৌরিপুর উপজেলা শাখা কৃষক লীগের সম্মানিত সদস্য। 

বিগত ২০০৬ সালে ১০ মে খালেদা-নিজামী জোট সরকারের পদত্যাগের দাবিতে নেত্রকোণা জেলা ডি.সি. অফিস ঘেরাও কর্মসূচী আন্দোলনে সম্মুখ ভাগে নেত্রীত্ব দিয়ে তৎকালিন স্বৈরাচার সরকারের চরম মামলা হামলার শিকার হন এবং তাকে পুলিশ এর মাধ্যমে শারিরীক ভাবে নির্যাতন করে রাস্তায় ফেলে চলে যায়। নেত্রকোণা ফায়ার সার্ভিস এর প্রতিনিধি দল তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। তার চিকিৎসার অবনতি হলে তৎকালীন বিরোধী দলের নেত্রী বর্তমানের প্রধানমন্ত্রী  শেখ হাসিনার নিদের্শে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা করে সুস্থ হয়। পরবর্তীতে ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের জহিরুল হলে একটি রুমে ছাত্রলীগ কর্মিদের কাছে আশ্রয় নেয়। এদিকে আওয়ামীলীগ রাজনীতি করার কারণে নেত্রকোণায় তার নামে মিথ্যা মামলা হুলিয়া রুজু হয়। তার নির্যাতনের ছবি তৎ কালীন আওয়ামীলীগের প্রচার সম্পাদক আসাদুরজ্জামান নূর সংগ্রহ করে রাখেন জননেত্রী শেখ হাসিনার নিদের্শে। 

করোনা সংকট কালে নিজ উদ্দ্যেগে চার নং মাওহা ইউনিয়নের জনগনের মাঝে সেবা প্রধান করে যাচ্ছেন। আগামী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের মাওহা ইউনিয়ন পরিষদ আওয়ামীলীগের চেয়ারম্যান হিসাবে এলাকার সর্বস্তরের জনগন দেখতে চায় বলে এলাকার বাসীর দাবী। মাসুদ বলেন আমি বঙ্গবন্ধুর আদের্শের সৈনিক এবং মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনার ¯েœহাধণ্যে আমি গর্বিত। সারা জীবন আওয়ামীলীগ রাজনীতিতে কাজ করে যাব।