জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধারা কোনভাবে আহত হয়ে থাকেন তার জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি .. সাংবাদিক শাখাওয়াত হোসেন শিমুল  

  জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধারা কোনভাবে আহত হয়ে থাকেন তার জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি .. সাংবাদিক শাখাওয়াত হোসেন শিমুল  

পূর্বধলা প্রতিনিধি : নেত্রকোনার পূর্বধলায় সাংবাদিকের বিরুদ্ধে একটি রিপোর্টকে কেন্দ্র করে ফেসবুক স্টেটাসের প্রতিবাদে উপজেলায় বিভিন্ন গণমাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকদের সম্মিলিত  সভা গতকাল শুক্রবার (২৪ জুলাই)সন্ধ্যায় পূর্বধলা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সৈয়দ আরিফুজ্জামান সভাপতিত্বে পূর্বধলা প্রেসক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও পূর্বধলার দর্পন এর প্রকাশক ও সম্পাদক নোমান শাহরিয়ারের সঞ্চালনায় প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন,প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি ও দৈনিক ইকরা প্রতিদিনের প্রকাশক ও সম্পাদক শফিকুজ্জামান শফিক, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জায়েজুল ইসলাম, পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সিনিয়র সদস্য জুলফিকার আলী শাহীন, প্রেসক্লাবের সিনিয়র সদস্য নূর আহম্মদ খান রতন, বিভাগীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ নূরুল ইসলাম, রিপোর্টাস ক্লাবের আহ্বায়ক মোঃ হাবিবুর রহমান,দৈনিক আমার সমাচার এর প্রকাশক ও সম্পাদক মোঃ এমদাদুল ইসলাম, প্রেসক্লাব পূর্বধলার সভাপতি ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান এস এম ওয়াদুদ,পূর্বধলা প্রেসক্লাব কোষাধ্যক্ষ শহীদুলহ সংগ্রাম, সদস্য মোহাম্মদ আলী জুয়েল, সদস্য শাহ্ মোস্তাাফিজুর রহমান রাজিব, সদস্য জাকির আহমেদ খান কামাল, দৈনিক প্রতিবাদ ডট কমের প্রকাশক ও সম্পাদক আল মনসুর,প্রেসক্লাব পূর্বধলা এর সাধারণ সম্পাদক মোঃ রুবেল, সাংবাদিক নজরুল ইসলাম, সাংবাদিক মুজিবুর রহমান, জিয়াউর রহমান প্রমুখ।
পূর্বধলা জগৎমনি সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের নিজস্ব জায়গা দিয়ে রাস্থা দেয়া-না দেয়াকে কেন্দ্র করে পূর্বধলা জগৎমনি সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সাথে মুক্তিযোদ্ধা মোঃ আব্দুল কাদিরের সাথে বিরোধ সৃষ্টি হয়। পরে বিদ্যালয়ের মাঠে সাইকেল সেড নির্মাণ কাজে বাধা দেয়াকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। উদ্ভোত পরিস্থিতিতে প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা ও শিক্ষকদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণের প্রতিবাদে জগৎমনি সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় ও বাংলাদেশ শিক্ষক সমিতি পূর্বধলা শাখার পক্ষ থেকে এক মানববন্ধন কর্মসূচীর আয়োজন করা হয়।
মানববন্ধন কর্মসূচীতে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পূর্বধলা জগৎমনি সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী ও বর্তমান পূর্বধলা প্রেসক্লাবের ক্রীড়া সম্পাদক এবং পূর্বময় ডট কমের প্রকাশক ও সম্পাদক শাখাওয়াত হোসেন শিমুল। তার বক্তব্যকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন অশালীন শব্দ ব্যবহার করে পোষ্ট, সেলফোনে হুমকি দেয়াসহ অনাকাঙ্খিত পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।
এরই প্রেক্ষিতে পূর্বধলা প্রেসক্লাবে সাংবাদিকদের নিয়ে আয়োজিত  সভায় শাখাওয়াত হোসেন শিমুল তার বক্তব্যে বলেন, প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা, হুমকি, অসৌজন্যমূলক আচরণ ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন ধরণের অপপ্রচারের বিরুদ্ধে আয়োজিত মানবন্ধনে তিনি অন্যান্যের সাথে বিদ্যালয়ের একজন সাবেক শিক্ষার্থী হিসেবে বক্তব্য প্রদান করেছেন। তিনি দৃঢ়ভাবে উল্লেখ করেন, জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি অবমাননা, আক্রমণ বা কটাক্ষ করে বক্তব্য রাখেননি। পরবর্তীতে তার বক্তব্যের সম্পূর্ণ অংশ প্রচার না করে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে শুধুমাত্র খন্ডিত অংশ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রচার করে একটি মহল বিভ্রান্তির অপচেষ্টা চালায়। এতে জনমনে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হচ্ছে বলে তিনি মনে করেন। 

প্রেসক্লাব আয়োজিত  সভায়  সাংবাদিক শাখাওয়াত হোসেন শিমুল  আরো বলেন ,জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধারা কোনভাবে আহত হয়ে থাকেন তার জন্য আন্তরিকভাবে দুঃখ প্রকাশ করছি ।

প্রতিবাদ সভায় বক্তারা বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে সাংবাদিকদের অহেতুক ভুল বোঝাবুঝির অবসান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার বন্ধ, ব্যক্তিগত আক্রমণ পরিহারকল্পে সংশিষ্ট সকলের দায়িত্বশীল আচরণের প্রতি গুরুত্বারোপ করেন এবং সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ সম্মিলিতভাবে মোকাবেলার প্রতি জোর দেন।