মানুষকে বইমুখী করতে সাজিউড়া সামাজিক পাঠাগারের উদ্বোধন

মানুষকে বইমুখী করতে সাজিউড়া সামাজিক পাঠাগারের উদ্বোধন

কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি ঃ আমরা জীবন দেব তবুও বসতবাড়ির ওপর দিয়ে খাল খনন হতে দেবনা। যেখানে সাঁতারখালি খালটি ভরাট হয়ে গেছে সেই খালটি খনন করে পানি নিষ্কাসনের দাবি কেন্দুয়া উপজেলার গন্ডা ইউনিয়নের শিবপুুর মধ্যপাড়া গ্রাম বাসির। গত বুধবার দুপুরে পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রস্তাবিত খাল খনন প্রকল্পটি বন্ধের দাবিতে নারী পুরুষ সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার শতাধিক মানুষ শিবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে মানববন্ধন শেষে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন। সমাবেশে তারা বলেন, শুধু বসতবাড়ীর ওপর দিয়ে নয়, সরকারি হালট দিয়ে খাল খনন করলে মসজিদ, স্কুল, মাদ্রাসা, মাজারেরও ক্ষতি হবে। বৃহস্পতিবার সকালে ওই গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা আবু বক্কর সিদ্দিক, মুক্তিযোদ্ধা আতাওর রহমান সঞ্জু, শরিয়ত আলী ফকির, আবুল কাশেম, সুরুজ আলী, আবুল কালাম ও সোহাগ মিয়ার সহ প্রায় অর্ধশত লোক কেন্দুয়া পৌর শহরের সাউদপাড়াস্থ উকিল বাড়িতে নেত্রকোনা-৩ আসনের এম.পি অসীম কুমার উকিলের নিকট ওই প্রকল্পটি বন্ধের দাবী জানান। মুক্তিযোদ্ধা আবু বক্কর সিদ্দিক বলেন, এম.পি অসীম কুমার উকিল আমাদের কথা মনোযোগ সহকারে শুনেছেন এবং বলেছেন তিনি ওই গ্রামে নিজে যাবেন। যদি জনস্বার্থে প্রকল্পটি বন্ধ করতে হয় অবশ্যই করবেন। এর পর শিবপুর গ্রামবাসী উপজেলা নির্বাহী কমকর্তা আল-ইমরান রুহুল ইসলামের সঙ্গেও দেখা করে বসতবাড়ীর ওপর দিয়ে খাল খনন প্রকল্প বন্ধের দাবী জানান। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আল-ইমরান রুহুল ইসলাম বলেন, এরকম কোন প্রকল্প এখনও আমাদের হাতে আসেনি। সম্ভবত পানি উন্নয়ন বোর্ডের একটি প্রকল্প হতে পারে। যদি জনগণের উপকারে না আসে সে ক্ষেত্রে ওই প্রকল্পের কাজ বন্ধ থাকবে। এম.পি অসীম কুমার উকিল বলেন, খাল খনন প্রকল্পটি যদি বসতবাড়ীর ওপর দিয়ে হয় অথবা জনগণের কোন উপকারে না আসে তাহলে এই প্রকল্পের কাজ ভেবেচিন্তে করার জন্য সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে পরামর্শ দেব।