নেত্রকোনার কলমাকান্দায় গরুর ঘাস খাওয়াকে কেন্দ্র করে ভাতিজার ছুরিকাঘাতে চাচার মৃত্যু

নেত্রকোনার কলমাকান্দায় গরুর ঘাস খাওয়াকে কেন্দ্র করে ভাতিজার ছুরিকাঘাতে চাচার মৃত্যু

এ কে এম আব্দুল্লাহ, নেত্রকোনা ঃ নেত্রকোনার কলমাকান্দায় গরুর ঘাস খাওয়ানোকে কেন্দ্র করে ভাতিজা মামুন বিল্লাহ’র (২২) ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত চাচা আমিনুল ইসলাম (৫০) ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে দুইদিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে বৃহস্পতিবার সকালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার বিকালে নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়নের কাকুরিয়া মাছিম গ্রামে।
      স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, কাকুরিয়া মাছিম গ্রামের মৃত মনির উদ্দিনের ছেলে আমিনুল ইসলামের সাথে গরুর ঘাস খাওয়ানোকে কেন্দ্র করে তারই ভাতিজা মামুন বিল্লাহ’র বিরোধ দেখা দেয়। এরই জের ধরে গত মঙ্গলবার বিকালে চাচা আমিনুল স্থানীয় শ্যামপুর বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে নদী পাড় হাওয়া মাত্রই ভাতিজা মামুন লাথি মেরে তাকে নদীর পাড়ে ফেলে পেটে ছুরিকাঘাত করে মারাত্মক আহত করে। আশপাশের লোকজন মারাত্মক আহত আমিনুলকে উদ্ধার করে দ্রæত কলমাকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক অবস্থার অবনতি দেখে ওই দিনই তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করেন। সেখানে দুই দিন মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে অবশেষে বৃহস্পতিবার সকালে তিনি মারা যান।
       এ ব্যাপারে কলমাকান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ মাজহারুল করিমের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, চাচাকে ছুরিকাঘাত করার সময় হুড়োহুড়িতে মামুনের নিজের হাতও কেটে যায়। এরপর থেকে সেও কলমাকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ছিলো। আমিনুলের মৃত্যুর খবর পাওয়ার সাথে সাথে পুলিশ মামুনকে সেখান থেকেই আটক করে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।