নেত্রকোনার হাওরের গোসল করতে নেমে স্কুল ছাত্র নিখোঁজ ঃ পানিতে পড়ে নিখোঁজ পাহাড়াদার

নেত্রকোনার হাওরের গোসল করতে নেমে স্কুল ছাত্র নিখোঁজ ঃ পানিতে পড়ে নিখোঁজ পাহাড়াদার

এ কে এম আব্দুল্লাহ, নেত্রকোনা ঃ নেত্রকোনা জেলার মদন উপজেলার উচিতপুর ঘাটে বন্ধুদের নিয়ে বেড়াতে গিয়ে শুক্রবার দুপুরে হাওরের পানিতে গোসল করতে নেমে হৃদয় মিয়া (১৪) নামক দশম শ্রেণির এক স্কুল ছাত্র নিখোঁজ হয়েছে।
   মদন থানার এ এস আই মোঃ সোহরাব হোসেন স্থানীয় লোকজন ও সহপাঠীদের বরাত দিয়ে জানায়, নেত্রকোনা সদর উপজেলার কাইলাটী ইউনিয়নের মৌজেবালী গ্রামের ফরিদ মিয়ার ছেলে ও আব্বাছিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র হৃদয় তার বন্ধুদের নিয়ে শুক্রবার দুপুরে একটি পিক-আপ ভ্যানে চড়ে উচিতপুর ঘাটে বেড়াতে আসে। এক পর্যায় তারা উচিতপুর ঘাটের হাওরের পানিতে গোসল করতে নামে। এ সময় হাওরে প্রচন্ড বাতাসের কারণে বড় বড় টেউ উঠছিল। সবাই গোসল করে তীরে উঠলেও হৃদয় পানিতে তলিয়ে নিখোঁজ হয়। সহপাঠীরা তাৎক্ষনিক বিষয়টি স্থানীয় লোকজনকে জানিয়ে সহযোগিতা কামনা করে। স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থলে জাল ফেলে তাকে উদ্ধারে ব্যর্থ হয়ে মদন থানা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসকে জানায়। তারাও হৃদয়কে উদ্ধারে ব্যর্থ হয়ে অবশেষে ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিস এন্ড সিভিল ডিফেন্স-এর ডুবুরী দলকে আমন্ত্রণ জানায়। ময়মনসিংহের ডুবুরী দল ঘটনাস্থলে পৌছে পৌনে ৭টা পর্যন্ত চেষ্টা চালিয়ে নিখোঁজ হৃদয়ের কোনো সন্ধান পায়নি।
    অপরদিকে খালিয়াজুরী উপজেলার লড়ি কান কাঠি জল মহালে পানিতে পড়ে গিয়ে আলী আহম্মদ (৫৫) নামক এক জলমহাল পাহাড়াদার নিখোঁজ রয়েছে। স্থানীয় লোকজন ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বল্লী গ্রামের আলী আহমদ তার অন্যান্য পাহাড়াদারদের নিয়ে ইঞ্জিন চালিত নৌকাযোগে লড়ি কান কাঠি জলমহাল পাহাড়া দেয়ার সময় অসাবধানতা বশত নৌকা থেকে পড়ে যায়। অন্যান্য সহযোগীরা তার ব্যাপক অনুসন্ধান চালিয়েও সন্ধ্যা পর্যন্ত আলী আহমদের কোন সন্ধান পায় নি।