বার ও বেঞ্চের সমন্বয়ে দ্রুততম সময়ের মধ্যে ন্যায় বিচার নিশ্চিত করুন ---আইনমন্ত্রী আনিসুল হক

বার ও বেঞ্চের সমন্বয়ে দ্রুততম সময়ের মধ্যে ন্যায় বিচার নিশ্চিত করুন ---আইনমন্ত্রী আনিসুল হক

এ কে এম আব্দুল্লাহ, নেত্রকোনা থেকে ঃ আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক এমপি বলেছেন, দেশে একদিনে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব নয়। ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার পর ইনডেমনিটি অধ্যাদেশের মাধ্যমে জিয়াউর রহমান সরকার আইনের শাসনের পথ রুদ্ধ করা হয়েছিল। প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সরকার প্রতিষ্ঠার পর ইনডেমনিটি অধ্যাদেশ বাতিল করে দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় নিরলসভাবে কাজ করছে। বঙ্গবন্ধু হত্যা, জাতীয় চার নেতা হত্যা, ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হত্যা মামলা, এতিমের টাকা মেরে খাওয়ার মামলার বিচার করা হয়েছে। তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের উন্নয়ন কর্মকান্ডের সাথে তাল মিলিয়ে ৭ কোটি ব্যায়ে সুন্দর বার ভবন নির্মাণ করে দিয়েছে। বার ও বেঞ্চের সমন্বয়ের মাধ্যমে দ্রুততম সময়ের মধ্যে ন্যায় বিচার নিশ্চিত করতে সবাইকে আরো দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করতে হবে। তিনি আরো বলেন, দেশে যখন একটা ঘটনা ঘটে, তখন সরকারকে বেকায়দায় ফেলানোর জন্য এ ধরণের একাধিক ঘটনা ঘটে। এগুলো বিএনপি জামায়াতে নিখোঁত সাবোটাজ। এ ব্যাপারে সবাইকে সর্তক থাকতে হবে। তিনি সোমবার দুপুরে নেত্রকোনা জেলা আইনজীবী সমিতির নব-নির্মিত ৫তলা ভবনের শুভ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে এসব কথা বলেন। তিনি শীঘ্রই নেত্রকোনায় জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্টেট আদালত নির্মাণসহ আইনজীবীদের নানাবিদ সমস্যা সমাধানের আশ্বাস প্রদান করেন।  
    নেত্রকোনা জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এডভোকেট সিতাংশু বিকাশ আচার্য্যরে সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট আমিনুল হক খান মুকুলের পরিচালনায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন কেন্দুয়া-আটপাড়া আসনের এমপি অসীম কুমার উকিল, সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি হাবিবা রহমান খান শেফালী,  প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সচিব সাজ্জাদুল হাসান, ইন্সপেক্টর জেনারেল অব রেজিষ্টার খান মোহাম্মদ আব্দুল মান্নান, শেখ হাসিনার  বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. রফিক উল্লাহ খান, জেলা ও দায়রা জজ আবু মোঃ আমিমুল এহ্সান, আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের যুগ্ম সচিব (প্রশাসন) বিকাশ কুমার সাহা, জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম, পুলিশ সুপার জয়দেব চৌধুরী, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রশান্ত কুমার রায়, পৌর মেয়র আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম খান, জিপি এডভোকেট আমিরুল ইসলাম, এডভোকেট মোঃ শহিদুল্লাহ, এডভোকেট আমিনুল ইসলাম ভূইয়া, এডভোকেট লিয়াকত আলী খান, এডভোকেট গোলাম মোহাম্মদ খান পাঠান বিমল।