দুর্গাপুরে গৃহকর্মী কিশোরী ধর্ষণ ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ঃ ধর্ষকের আত্মসমর্পণ

 দুর্গাপুরে গৃহকর্মী কিশোরী ধর্ষণ ৬ মাসের অন্তঃসত্ত্বা ঃ ধর্ষকের আত্মসমর্পণ

 দূর্গাপুর প্রতিনিধি : নেত্রকোনার দুর্গাপুরে গৃহকর্মী কিশোরী (১৭) ধর্ষণে ৬মাসের অন্তঃসত্ত্বার ঘটনায় অভিযুক্ত মোস্তফা (৩৫) বৃহস্পতিবার রাত ৯টার দিকে দুর্গাপুর থানায় আত্মসমর্পণ করেছে।
থানায় আত্মসমর্পণের বিষয়টি অভিযুক্ত মোস্তফার স্বজন ও স্থানীয়রা এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।
       স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, কিশোরী গৃহকর্মী একাধিক ধর্ষণের ঘটনায় ৬মাসের অন্তঃসত্ত্বার বিষয়টি জানাজানি হলেই স্থানীয়ভাবে ধামা-চাপা দেয়ার চেষ্টা করে মোস্তাফা। শিশুর পিতার স্বীকৃতি না পেয়ে কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে গত ২৩ এপ্রিল দূর্গাপুর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন। মামলা দায়েরের পর পরই মোস্তাফা গাঁ ডাকা দেয়। ধর্ষক মোস্তাফার কোন খোঁজ না পেয়ে পুলিশ গত ১৬ মে বিকেলে মোস্তফার স্ত্রী স্কুল শিক্ষক মর্জিনা খাতুন (৩২), মা রাবিয়া খাতুন (৫৫), বোন জামাই দিলোয়ার হোসেনকে (৩৫) আটক করে থানায় নিয়ে আসে। মা, স্ত্রী ও বোন জামাই আটকের খবর পেয়ে পলাতক থাকা ধর্ষক মোস্তাফা ওইদিন রাত সাড়ে ৯টার দিকে থানায় আত্মসমর্পণ করে। তাঁকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে শুক্রবার সকালে নেত্রকোনা আদালতে হাজির করা হলে বিজ্ঞ আদালত তাকে জেলহাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।
      এ ব্যাপারে দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মিজানুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, পলাতক মোস্তফাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।