কেন্দুয়ায় স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে রক্তাক্ত  জখম

কেন্দুয়ায় স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে রক্তাক্ত  জখম

কেন্দুয়া প্রতিনিধি : নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে স্বামী-স্ত্রীকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম  করেছে প্রতিপক্ষরা।গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১০ টার দিকে বলাইশিমূল ইউপির বলাইমিমূল গ্রামে এঘটনাটি ঘটেছে।  আহতরা হলেন, বলাইশিমূল গ্রামের মৃত নায়েব আলীর ছেলে ইজ্জত আলী (৫৫) ও তার স্ত্রী স্বপ্না আক্তার (৫০)। সুত্র জানায়,জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে আহত ইজ্জত আলী সাথে একই গ্রামের  প্রতি পক্ষ মৃত সাহাব উদ্দিনে ছেলে সোনা মিয়া ও চদ্দু মিয়া গংদের শত্রুতা চলে আসছিল।  ইজ্জত আলী বাড়ির পাশে বিরোধপূর্ণ জায়গায় একটি কেড়ে গাধা দিতে চেয়ে ছিলেন। এনিয়ে দুই পক্ষের মাঝে কথার কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে সোনা মিয়া ও চদ্দু মিয়া গংদরা দেশীয় অস্রে সজ্জিত হয়ে ইজ্জত আলীকে মারতে গেলে স্ত্রী বাঁধা দিলে তাকে মারপিট শুরু করে। পরে স্বামী ইজ্জত আলী এগিয়ে আসলে তাকেও কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আহতদের উদ্ধার হাসপাতালে পাঠায়। প্রতিপক্ষের আঘাতে ইজ্জত আলীর দুই হাতে দুই আঙ্গুল কেটে পড়ে গেছে । তাদেরকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা করা হচ্ছে। ইজ্জত আলীর বড় ভাই তাহাজ্জত আলী বলেন, ৮০ শতক জমি নিয়ে বহুদিন ধরে সোনা মিয়াদের সাথে মামলা মোকদ্দমা চলছে। এই জমি আমরা আদালত থেকে ডিগ্রী পেয়েও আমরা এই জমিতে যাইতে পারি না। বাড়ির সাইডে দিয়ে ধানের খেড়ের গাধা দেওয়া আমার ভাই ও ভাই বউকে তারা কুপিয়েছে। কেন্দুয়া থানার ওসি (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে ইজ্জত আলী পরিবারের ওপর হামলা হয়েছে। আহত স্বামী-স্ত্রী দুইজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।