পরীক্ষা দেয়া হলো না স্কুল শিক্ষার্থীর 

পরীক্ষা দেয়া হলো না স্কুল শিক্ষার্থীর 

মদন প্রতিনিধি : নেত্রকোনার আটপাড়া উপজেলার রিনামণি (১৪) নামে অষ্টম শ্রেণীর এক শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ের মূল্যায়ন পরীক্ষা দেওয়া হলো না। শনিবার দুপুরে মদন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসার পথে সে মারা যায়। তবে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে  বাড়িতে কীটনাশক পান করে সে আত্মহত্যা করেছে। সে আটপাড়া উপজেলার সুখারী ইউনিয়নের সোনাকান্দি গ্রামের নজরুল ইসলামের মেয়ে ও নাজিরগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী। বাবা নজরুল ইসলাম বলেন, আমি বাড়িতে ছিলাম না। বাড়ির সামনের হাওরে কাজ করতে ছিলাম। হঠাৎ শুনি আমার মেয়ে কি খেয়ে অনেক বুমি করতেছে। বুমি করতে করতে এক পর্যায়ে সে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। পরে চিকিৎসার জন্য মদন হাসপাতালে নিয়ে আসি। সেখানেই সে মারা গেছে। তবে এমন কেন হল বুঝতে পারতেছি না। আমার মেয়েটির সামনে পরীক্ষা ছিল। মদন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডাক্তার সাঈম হাসান রিয়াদ জানান,  হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই মেয়েটি মারা গেছে। তবে কি পান করে মারা গেছে প্রাথমিকভাবে বলা যাচ্ছে না। তাই পুলিশ প্রশাসনকে বিষয়টি জানিয়েছি। 
আটপাড়া থানার ওসি জাফর ইকবাল জানান, মদন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পুলিশ প্রেরণ করেছি। মেয়েটি হয়তো পরিবারের সাথে অভিমান করে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে। ময়না তদন্তের পর বিষয়টি জানা যাবে। তবে এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।