দেশে টিকা তৈরি করে অন্য দেশকে দেয়ার সক্ষমতা আছে: প্রধানমন্ত্রী

দেশে টিকা তৈরি করে অন্য দেশকে দেয়ার সক্ষমতা আছে: প্রধানমন্ত্রী

টিকা উৎপাদন করে অন্যান্য দেশকে টিকা প্রদান করার সক্ষমতা বাংলাদেশের আছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার (১৫ নভেম্বর) দুপুরে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন। সম্প্রতি জলবায়ু সম্মেলন ও কয়েকটি দেশে সফরে, বিশ্বের শীর্ষ নেতাদের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় অংশ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। সেই প্রসঙ্গ টেনে সংসদকে তিনি জানান, করোনা নিয়ন্ত্রণে বাংলাদেশের সাফল্য আজ বিশ্বস্বীকৃত। জলবায়ু সম্মেলনে গিয়ে আমি অন্যদের বলেছি, আমরা টিকা তৈরি করতে চাই। টিকা তৈরিতে যে বাধাগুলো আছে, সেগুলো ঠিক করতে হবে। এবং এটি উন্মুক্ত করতে হবে। টিকা তৈরির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, সুযোগ দিলে আমরাও টিকা উৎপাদন করবো। আমাদের সেই সক্ষমতা আছে। সেজন্য জমিও কিনে রেখেছি। আমরা কিন্তু উদ্যোগ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছি। বাংলাদেশের জাতির পিতার নামে পুরস্কার চালু করেছে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতি সংস্থা ইউনেস্কো। এ বিষয়ে সংসদে ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন করেন সরকার দলীয় সংসদ সদস্য আব্দুস শহীদ। অধিবেশনে এ প্রস্তাবের উপর আলোচনায় অংশ নেন উপস্থিত সংসদ সদস্যরা। আলোচনায় অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ইউনেস্কোর এই উদ্যোগ দেশের জন্য সম্মান বয়ে এনেছে। বাংলাদেশের প্রতি পুরো বিশ্বের দৃষ্টিভঙ্গি এখন ইতিবাচক হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। উগান্ডার একটি প্রতিষ্ঠান এবার এ পুরস্কার পেয়েছে। তারা কাজ করছে যুব সমাজের উন্নয়ন নিয়ে। ভবিষ্যতে বাংলাদেশের কোনো উদ্যোক্তা এই পুরস্কার পাবে বলে প্রত্যাশা প্রধানমন্ত্রীর। অধিবেশনে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ এখন আর পিছিয়ে নেই। চাইলেই বাংলাদেশের উন্নয়ন করা যায়, সেটা প্রমাণ করেছে আওয়ামী লীগ। তিনি বলেন, চাকরি নিতে নয়, চাকরি দেয়ার জন্য তরুণদের তৈরি করছে বাংলাদেশ। প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশ এখন আর পিছিয়ে নেই। অবকাঠামো থেকে শুরু করে শিক্ষা ও গবেষণায় অনেক দূর এগিয়েছে বাংলাদেশ। পরে সংসদে উপস্থিত সদস্যদের ভোটে ইউনেস্কোর প্রতি এই ধন্যবাদ প্রস্তাব গৃহীত হয়।