কলমাকান্দায় গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার ! অভিযোগ স্বামী ও শ্বশুড় আটক

কলমাকান্দায় গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যার ! অভিযোগ স্বামী ও শ্বশুড় আটক

কে এম আব্দুল্লাহ, নেত্রকোনা : যৌতুকের জন্য পারমিনা আক্তার (২৮) নামে এক গৃহবধুকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে ঘটনাটি ঘটেছে, শুক্রবার ভোরে নেত্রকোনা জেলার কলমাকান্দা উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়নের সিধলী পূর্বপাড়া গ্রামে ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহত পারমিনের স্বামী শফিকুল ইসলাম (৪৫) শ্বশুড় তোরাব আলীকে (৭০) আটক করে থানায় নিয়ে এসেছে

       নেত্রকোনা জেলার বারহাট্টা উপজেলার রতœপুর গ্রামের নিহত পারমিনের ভাই তরিকুল ইসলাম জানান, শফিকুল ইসলাম তার পরিবারের লোকজন যৌতুক লোভী পারমিনকে প্রায়শই তারা যৌতুকের জন্য অত্যাচার নির্যাতন চালিয়ে আসছিল পারমিনকে অত্যাচার নির্যাতনের হাত থেকে রক্ষা করতে তার পরিবার জামাই শফিকুলকে ইতিমধ্যে যৌতুক হিসেবে এক লাখ টাকা দেয়া হয় সেই টাকা দেদারছে খরচ করার পর যৌতুকলোভী শফিকুল তার পরিবার পূনরায় আরো এক লাখ টাকা বাপের বাড়ী থেকে যৌতুক এনে দেয়ার জন্য পারমিনের উপর শারীরিক মানসিক অত্যাচার নির্যাতন শুরু করে পরমিন বাপের বাড়ী থেকে টাকা এনে দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে পাষন্ড স্বামী তার পরিবারের লোকজন শুক্রবার ভোরে পারমিনকে বেদড়ক পিটিয়েছে পারমিনের গলা, বুক পিটসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে কারনেই পারমিনের মৃত্যু হয়েছে

       অপরদিকে পারমিনের স্বামী শফিকুল ইসলামের পরিবারের লোকদের দাবি এটি কোন হত্যাকান্ড নয় এটি শুধু মাত্রই আত্মহত্যা

       ব্যাপারে কলমাকান্দা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মাজহারুল করিমের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি গৃহবধুর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পারমিনের মৃত্যুর বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য স্বামী শফিকুল ইসলাম শ্বশুর তোরাব আলীকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে পারমিনকে হত্যা করা হয়েছে বলে প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে ময়না তদন্ত রিপোর্ট হাতে ফেলে বুঝা যাবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা