শেষ মুহূর্তের রোমাঞ্চে চেন্নাইকে হারিয়ে শীর্ষস্থানে দিল্লি

শেষ মুহূর্তের রোমাঞ্চে চেন্নাইকে হারিয়ে শীর্ষস্থানে দিল্লি

শীর্ষস্থান নিয়ে লড়াই ছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংস এবং রিশাভ পান্তের দিল্লি ক্যাপিটালসের মধ্যে। শেষ পর্যন্ত ধোনিদের ৩ উইকেটের ব্যবধানে হারিয়ে সেই স্থানটিতে নিজেদের অবস্থান নিরঙ্কুশ করে নিলো দিল্লি ক্যাপিটালস।চেন্নাইর ছুঁড়ে দেয়া ১৩৬ রানের চ্যালেঞ্জ পাড়ি দিতে অবশ্য বেশ হিসেব নিকেশ করেই খেলেছে দিল্লি। যে কারণে ৭টি উইকেটের পতন হয়েছে তাদের এবং বল হাতে ছিল মাত্র ২টি। তবুও, জয়ই শেষ কথা। এই জয়ের ফলে ১৩ ম্যাচ শেষে দিল্লির পয়েন্ট ২০। সমান ম্যাচে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে চেন্নাই। দু’দলেরই আর একটি করে ম্যাচ বাকি রয়েছে।যদিও শেষ ওভারে বেশ নাটকীয়তা এবং রোমাঞ্চ তৈরি হয়েছিল। শেষ ওভারে দিল্লির জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিল ৬ রান। ডোয়াইনি ব্র্যাভোর কাছ থেকে হেটমায়ার নেন ২ রান। পরের বলে ওয়াইড। রানও হলো একটি। মোট ২ রান। পরের বল অক্ষর প্যাটেল কোনো রান নিতে পারলেন না। এর পরের বলেই প্যাটেল আউট।বল বাকি তিনটি। রান প্রয়োজন ২। চূড়ান্ত নাটকীয়তা যেন জমে উঠেছে। কিন্তু মাঠে নেমেই কাগিসো রাবাদা সজোরে ব্যাট চালালেন এবং বল চলে গেরো সীমানার বাইরে। ৩ উইকেটের জয় তুলে নিল দিল্লি।১৩৭ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নামার পর পৃথ্বি ’শ আর শিখর ধাওয়ান মিলে তোলেন ২৪ রান। পৃথ্বি আউট হয়ে যান ১৮ রান করে। শিখর ধাওয়ান ৩৫ বল খেলে করেন ৩৯ রান। শ্রেয়াশ আয়ার ২ রান করে আউট হলেও রিশাভ পান্ত করেন ১৫, রিপাল প্যাটেল করেন ১৮ রান এবং অশ্বিন আউট হন ২ রান করে।
শিমরন হেটমায়ার শেষ মুহূর্তে কিছুটা ঝড় তোলেন। ১৮ বল খেলে তিনি অপরাজিত থাকেন ২৮ রানে। অক্ষর প্যাটেল আউট হন ৫ রান করে এবং রাবাদা ১ বল মোকাবেলা করে বাউন্ডার মেরে দলকে জিতিয়ে মাঠ ছাড়েন।চেন্নাইয়ের হয়ে রবিন্দ্র জাদেজা এবং শার্দুল ঠাকুর নেন ২টি করে উইকেট। ১টি করে উইকেট নেন দিপক হুদা, জস হ্যাজেলউড এবং ডোয়াইন ব্র্যাভো।এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে আম্বাতি রাইডুর ৪৩ বলে ৫৫ রান সত্ত্বেও ধোনির দল চেন্নাই স্কোরবোর্ডে রান তোলে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৩৬। ২৭ বলে ১৮ রান করেন ধোনি। ১৯ রান করেন রবিন উথাপ্পা।