নেত্রকোনায় মাদ্রাসা ছাত্রীকে উত্যক্ত ও মারধরের অভিযোগে বখাটে আটক

নেত্রকোনায় মাদ্রাসা ছাত্রীকে উত্যক্ত ও মারধরের অভিযোগে বখাটে আটক

কে এম আব্দুল্লাহ, নেত্রকোনা মাদ্রাসা শিক্ষার্থীকে উত্যক্ত এবং মারধরের অভিযোগে নেত্রকোনা মডেল থানার পুলিশ রবিবার সকাল ১০ টার দিকে মেদনী  ইউনিয়নের সৈয়দপুর গ্রাম থেকে সায়মন নামক এক বখাটেকে আটক করেছে। আটককৃত সায়মন সৈয়দপুর গ্রামের সাহেদ আলী ফকিরের ছেলে।

    এলাকাবাসী  পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সৈয়দপুর গ্রামের বখাটে সায়মন দীর্ঘদিন যাবৎ একই গ্রামের এক ছাত্রীকে মাদ্রাসায় যাওয়া আসার পথে উত্যক্ত করে আসছিলো। গতকাল রবিবার সকালে মাদ্রাসার ছাত্রীটি তার এক বান্ধবীকে নিয়ে মাদ্রাসায় যাওয়ার পথে বখাটে সায়মন ছাত্রীটিকে উত্যক্ত শুরু করলে মেয়েটি এর প্রতিবাদ করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে সায়মন তার পথরোধ করে মারধর করে। মেয়েটি মাদ্রাসায় না গিয়ে বাড়ীতে ফিরে গিয়ে মারধরের বিষয়টি তার বাবা মাকে জানায়। ইতিমধ্যে বিষয়টি এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে। মেয়েটির পরিবার বিষয়টি থানা পুলিশকে অভিযোগ আকারে জানিয়ে ন্যায় বিচার প্রার্থনা করে। অভিযোগের প্রেক্ষিতে পুলিশ সৈয়দপুর এলাকা থেকে বখাটে সায়মনকে আটক করে।

    ব্যাপারে নেত্রকোনা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ তাজুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযোগের প্রেক্ষিতে বখাটে সায়মনকে আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যাবস্থা নেয়া হচ্ছে।