র্দুগাপুরে পুত্রকে পটিয়িে হত্যা করলো

র্দুগাপুরে পুত্রকে পটিয়িে হত্যা করলো

 

নত্রেকোনার র্দুগাপুরে নজি সন্তান আব্দুল হক(৩০)কে পটিয়িে হত্যা করে মাটতিে পুঁতে রখেছেলিো পতিা আলী আমজাদ(৬৮)। শনবিার রাতে উপজলোর কাকরৈগড়া ইউনয়িনরে ততিারজান গ্রামে এই ঘটনাটি ঘট।

স্থানীয় ও পুলশি সূত্রে জানা যায়, আব্দুল হক সব সময় নশো করতো এবং বাসায় এসে টাকার জন্য বাবা মা কে মারধর করতো সব সময়। নশো করার জন্য তার স্ত্রীও অনকেদনি আগে তাকে ছড়েে চলে গছেনে। আব্দুল হকরে অত্যাচার সহ্য করতে না করে তার পতিা মাতা থানায় অভযিোগ করছেে কয়কেবার পুত্ররে বরিুদ্ধ। থানায় মামলা রয়ছেে তার। কছিু দনি যাবত আব্দুল হক তার পতিা মাকে নশোর টাকার জন্য বশেি রকম অত্যাচার করতো বাসায় এস।
শনবিার রাতে আব্দুল হক টাকার জন্য তার পতিা মাতার উপর অত্যাচার শুরু করলে এক র্পযায়ে পতিা আলী আমজাদ ছলেকেে কাঠরে মোগর দয়িে পটিাতে শুরু করে আব্দুল হক চল্লোচল্লিি শুরু করলে পাশ্বর্বতী বাড়রি লোকজন শুনওে ফরোতে কউে আসনে। মারধররে এক র্পযায়ে আব্দুল হকরে মৃত্যু হলে নজি ঘররে বারান্দার কক্ষে মাটিতে পুতে রাখেন পিতা 

রোববার পাশ্বর্বতী বাড়রি লোকজন ছলেটেকিে না পয়েে ইউপি চয়োরম্যান নুর মোহাম্মদকে খবর দয়ে। নুর মোহাম্মদ লোকজন নয়িে বাড়তিে এসে বারান্দার কক্ষে নতুন মাটি দখেে বষিয়টি সন্দহে হলে পুলশিকে খবর দয়ে। পুলশি এসে মাটি খুঁড়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নয়িে আস।
 
এ ব্যাপারে র্দুগাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত র্কমর্কতা(ওসি) শাহনুর-এ আলম ঘটনার সত্যতা নশ্চিতি করে জানান, আব্দুল হকরে পতিা মাতাকে আটক করা হয়ছে।প্রাথমিকি জজ্ঞিাসাবাদে পুত্র হত্যার ঘটনা পতিা মাতা স্বীকার করছে মরদেহটি ময়নাতদন্তরে জন্য নত্রেকোনা র্মগে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছ।