কেন্দুয়ায় সরকারি হালট দখল নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত 

কেন্দুয়ায় সরকারি হালট দখল নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত 


সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, কেন্দুয়া প্রতিনিধি 

    নেত্রকোণার কেন্দুয়া উপজেলায় একটি সরকারি হালটের দখল নিয়ে দুই পক্ষের রক্ষক্ষয়ী সংঘর্ষ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। বুধবার দুপুরে উপজেলার কান্দিউড়া ইউনিয়নের জালালপুর পাছপাড়া গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে আহতদের মধ্যে জুলহাস মিয়া(২৫), আলআমিন (৩২), আলমগীর (২৫), কাজিম উদ্দিন (৪০), ফৌজদার মিয়া (৫০), মিনহাজ মিয়া (৫০), টিপন মিয়া (২০), জুয়েল মিয়া (৪৫), আবুল কালাম (৫০), ও আব্দুস সালাম (৫৫) কে কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্স ও আশংকা জনক অবস্থায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। জালালপুর গ্রামের হাওরে যাওয়ার একটি সরকারি হালটের ভোগ দখলকে কেন্দ্র করে ওই গ্রামের আব্দুল হক মিয়ার সাথে একই গ্রামের আব্দুস সালামের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। বিষয়টি মিমাংসার জন্য বুধবার সকালে উভয় পক্ষকে নিয়ে গ্রামে একটি সালিশও বসেছিল। কিন্তু শালিশে দুইপক্ষের লোকদের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে গ্রামবাসী ওই সালিশ বৈঠক স্থগিত করে দেন। কিন্তু দুই পক্ষের লোকজন সালিশ বৈঠক থেকে উঠে গিয়েই দেশীয় ধাড়ালো অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে  সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে। কেন্দুয়া থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী শাহ নেওয়াজ এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, সংঘর্ষের খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। এ ঘটনায় এখনও কোন লিখিত অভিযোগ পাওয়া যায়নি। অভিযোগ পেলেই আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।