ফরিদপুরের সালথায় লকডাউন কার্যকর করতে বৃষ্টির মধ্যে যৌথ বাহিনীর অভিযান

ফরিদপুরের সালথায় লকডাউন কার্যকর করতে বৃষ্টির মধ্যে যৌথ বাহিনীর অভিযান

সালথা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি: বৈশ্বিক মহামারী করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এর কারণে থমকে গেছে সারা বিশ্ব। সংক্রমণ রোধে সারাদেশে একযোগে চলছে কঠোর লকডাউন। এরই অংশ হিসেবে ফরিদপুরের সালথায় চলছে কঠোর লকডাউন। করোনার উচ্চ সংক্রমণ ঝুঁকি এড়াতে চলমান কঠোর লকডাউন কার্যকরে চতুর্থ দিনে ফরিদপুরের সালথা উপজেলায় অভিযান চালিয়েছে যৌথ বাহিনী। 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মাদ হাসিব সরকার ও সহকারী পুলিশ সুপার (নগরকান্দা-সালথা সার্কেল) মো. সুমিনুর রহমানের নেতৃত্বে প্রতিদিনের মত রবিবার দুপুরের পর থেকে উপজেলা সদরসহ বিভিন্ন হাট-বাজারে এই অভিযানে নামে পুলিশ, সেনাবাহিনী, বিজিবি ও আনসার বাহিনীর সদস্যরা। 

অভিযানচলাকালে উপজেলা সদর সালথা বাজারে প্রচুর বৃষ্টি হয়। সেই বৃষ্টির মধ্যেই ছাতা মাথায় দিয়ে অভিযান পরিচালনা করতে দেখা যায় তাদের।

এ সময় জন-সাধারনকে সরকারের বেধে দেওয়া বিধিনিষেধ মেনে চলার ও অপ্রয়োজনে ঘর থেকে বের না হওয়ার পরামর্শ দেন তারা। পাশাপাশি মাস্কা ছাড়া ঘরের বাইরে না যাওয়ার নির্দেশনাও দেন। তবে চতুর্থদিনে কোনো কাউকে জেল-জরিমানা করার খবর পাওয়া যায়নি।

অভিযান পরিচালনার সময় সেনাবাহিনীর সদস্যদের নেতৃত্ব দেন ক্যাপ্টেন বিধান কৃষ্ণ মন্ডল ও বিজিবি সদস্যদের নেতৃত্ব দেন সুবেদার মীর মানিক হোসেন।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মাদ হাসিব সরকার বলেন, লকডাউনে সরকারের বেধে দেওয়া বিধিনিষেধ না মানায় গত তিন দিনে কয়েক জনকে জরিমানা করা হয়েছে। বাকি কয়েকদিনও অভিযান অব্যাহত থাকবে।