কেন্দুয়ায় যুবক খুনের ঘটনায় মা ও ছেলে কারাগারে

কেন্দুয়ায় যুবক খুনের ঘটনায় মা ও ছেলে কারাগারে

কেন্দুয়া প্রতিনিধি: জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ও পূর্বশত্রæতার জের ধরে কেন্দুয়া উপজেলার পাইকুড়া ইউনিয়নের চিটুয়া গ্রামের সাখাওয়াত হোসেন সাজন খুনের ঘটনায় ৫ নারী সহ ৮ জনের বিরুদ্ধে কেন্দুয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

নিহত যুবকের মা শাহনাজ বেগম বাদী হয়ে ৫ নারী সহ ৮ জনের বিরুদ্ধে গত শুক্রবার রাতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই মামলার এজাহারভ‚ক্ত আসামী মা ও ছেলে জিয়াউর রহমান ও মনোয়ারা বেগমকে গ্রেফতার করে শনিবার নেত্রকোণা আদালতে পাঠানো হয়। 

আদালতের বিচারক তাদের জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। এদিকে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক আবু সাইম গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন করেছেন। 

জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধ ও পূর্বশত্রæতার জের ধরে কেন্দুয়া উপজেলার পাইকুড়া ইউনিয়নের চিটুয়া গ্রামের লাল খাঁ ও আওয়াল খাঁর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ ও একাধিক মামলা মোকদ্দমা চলে আসছি। লাল খাঁ ও আওয়াল খাঁ সম্পর্কে সহোদর ভাই। 

চলতি মাসের ৮ জুন সকালে দুই পরিবারের লোকদের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষে আওয়াল খানের ছেলে সাখাওয়াত হোসেন সাজন গুরুতর আহত হন। 

আশংকা জনক অবস্থায় প্রথমে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ও পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৭ জুন সকালে সাজন মারা যান। 

শনিবার নেত্রকোণার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মনিরুল ইসলাম ও কেন্দুয়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার জোনাঈদ আফ্রাদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। 

কেন্দুয়া থানার ওসি কাজী শাহ নেওয়াজ জানান, সাজন হত্যার ঘটনায় এক নারী সহ দুইজনকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠালে আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।