গঠনতন্ত্র বিরোধী কাজ করায় পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সদস্য ইসমাইল হোসেন খোকন বহিস্কার

গঠনতন্ত্র বিরোধী কাজ করায় পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সদস্য ইসমাইল হোসেন খোকন বহিস্কার

পূর্বধলা প্রতিনিধি: গঠনতন্ত্র বিরোধী কাজ করায় নেত্রকোণার পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সদস্য মো: ইসমাইল হোসেন খোকনকে বহিস্কার করা হয়েছে। 

পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আজ শনিবার (১৯ জুন) পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সভাপতি সৈয়দ আরিফুজ্জামান তার বহিষ্কারের চিঠিতে স্বাক্ষর করেন। মো: ইসমাইল হোসেন খোকন নয়াদিগন্ত পত্রিকার পূর্বধলা উপজেলা সংবাদাদাতা  হিসেবে কাজ করছেন। 

বহিস্কারারের চিঠির বিবরনীতে ইসমাইল হোসেন খোকনের বিরুদ্ধে ৩টি অভিযোগ আনা হয়েছে। অভিযোগগুলো হলো তিনি পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সদস্য থাকাকালীন চলমান কমিটি গঠন হওয়ার পর থেকে টানা দেড় বছর প্রেসকাবের সাধারণ সভায় উপস্থিত হননি। বিধি অনুযায়ী প্রেসকাবের প্রত্যেক সদস্যের মাসিক নির্ধারিত চাঁদা প্রদান বাধ্যতামুলক। কিন্তু তিনি চাঁদা প্রদান করেননি । 

তাছাড়া গঠণতন্ত্র অনুযায়ী ক্লাবের কোন সদস্য উপজেলার অন্যকোন সংবাদকর্মীদের সংগঠনের সদস্য হওয়ার বিধান না থাকা সত্বেও তিনি অন্য একটি সংগঠনের উপদেষ্টা হিসেবে সম্পৃক্ত থেকে তার পৃষ্টপোষকতা করেছেন। এসকল প্রতিটি অভিযোগই গঠনতন্ত্র পরপন্থী।  

ইসমাইল হোসেন খোকনের এসব অনিয়মের প্রেক্ষিতে পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সভায় বিস্তারিত আলোচনা হয়। সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক গত ১৫ মার্চ তাকে কারণ দর্শানো চিঠি দেওয়া হয়। যার স্মারক নং পূর্ব/প্রেস, ২০২১/০০৪, তারিখ ১৫/০৩/২০২১খ্রি.। 

নিধারিত সময় পারহওয়ার পরও  তিনি চিঠির কোন জবাব দেননি। তাছাড়া তিনি পূর্বধলা প্রেসক্লাবের সদস্য পদের অপব্যবহার ও সাংবাদিকতার নাম ভাঙ্গিয়ে অবৈধ ভাবে রেলওয়ের জায়গা দখল এবং স্থাপনা নির্মাণ করে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করছেন বলে সম্প্রতি অভিযোগ ওঠে। 

তারই প্রেক্ষিতে প্রেসকাবের কার্যনির্বাহী পরিষদের গত ১৭ জুন ২০২১ খ্রি. সাধারণ সভায় সর্বসম্মতিক্রমে গঠণতন্ত্রের ধারা ১২, ধারা ৬ এর (ক) ও ধারা ৪ এর পরিশিষ্ট (খ) এর ৯ নং শর্ত অনুযায়ী মো: ইসমাইল হোসেন খোকনকে পূর্বধলা প্রেসক্লাব থেকে বহিস্কার করা হয়। 

উল্লেখ্য প্রেসকাবের গঠণতন্ত্র বিরোধী কাজ করার অভিযোগে তিনি এর আগেও একবার বহিস্কার হয়েছিলেন।