নেত্রকোনায় সড়কে মাটি কাটার কাজে অনিয়মের অভিযোগ

নেত্রকোনায় সড়কে মাটি কাটার কাজে অনিয়মের অভিযোগ

খলিলুর রহমান শেখ: নেত্রকোনা সদর উপজেলার কাইলাটী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে সড়কে মাটি কাটার কাজ না করেই বিল উঠিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ওঠেছে প্রকল্পের সভাপতি ও ইউনিয়ন পরিষদের ওয়ার্ড সদস্য মো. ইউসুফ আলীর বিরুদ্ধে। স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা এলাকাবাসী সাংবাদিকদের বিষয়টি জানান। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। 
 
অভিযোগে জানা গেছে, নেত্রকোনা সদর উপজেলার কাইলাটী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের বনুয়াপাড়ার এমদাদ মাস্টারের বাড়ি হতে আলাল উদ্দিনের বাড়ি পর্যন্ত প্রায় আধা কিলো মিটার সড়ক সংস্কারের জন্য ২ লাখ ২০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। প্রকল্পের নির্ধারিত পরিমান মাটি না কেটে যৎ সামান্য মাটি কেটে পুরাতন সড়ক এবং ভূয়া মাস্টার রোল তৈরী করে কাজের সমুদয় টাকা উঠিয়ে ফেলেছন প্রকল্প সভাপতি ওই ওয়ার্ডের সদস্য মো. ইউসুফ আলী। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মধ্যে চাপা ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।   
 
কাইলাটী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি নূরুল ইসলাম, ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি মোবারক হোসেনসহ একাধিক এলাকাবাসীর সাথে কথা হয়। সকলেই বলেন, প্রকল্পের কাজ সঠিকমত করা হয়নি। ওই কাজ করানো হয়েছে ১০০ দিনের কর্মসূচির কয়েকজন শ্রমিক দিয়ে। আর ২ লাখ ২০ হাজার টাকার কাজের মধ্যে ১০- ১৫ হাজার টাকার মাটি কেটে সম্পূর্ন কাজের বিল উঠিয়ে নেওয়া হয়েছে। সরকার টাকা দেয় এলাকার মানুষের চলাচলের সুবিধের জন্য। কিন্তু সুবিধে ভোগ করে থাকেন গুটি কয়েক সমাজকর্মী ও জনপ্রতিনিধি, যা কোনভাবে মেনে নেওয়া যায় না।  
  
কাইলাটী ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য ও প্রকল্প কমিটির সভাপতি মো. ইউসুফ আলীর সাথে একাধিকবার  যোগাযোগের চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি। তিনি মোবাইল রিসিভ করেন নি।  
 কাইলাটী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন বলেন, মাটি কাটিার কাজ ঠিকমত হয়নি। কিছু মাটি কেটে কাজ শেষ দেখােিনা হয়েছে। তবে বাকী কাজ ঠিকমত করার জন্য ওই ওয়ার্ডের মেম্বারকে বলা হয়েছে। 
 

নেত্রকোনা সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাসুদা আক্তার জানান, বিষয়টি তার জানা নেই। খোঁজ নিয়ে দেখে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহন করবেন।