কলমাকান্দায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে বাল্যবিবাহ ভণ্ডুল

কলমাকান্দায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে বাল্যবিবাহ ভণ্ডুল

স্টাফ রিপোর্টার: নেত্রকোণার কলমাকান্দায়  বাল্যবিবাহ আয়োজন ভণ্ডুল করে দিলেন উপজেলা প্রশাসন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অমিত রায় বাল্যবিবাহ বন্ধ করেন। এদিকে বাল্যবিবাহের আয়োজন করার দায়ে বর ও কনের অভিভাবকদের  জরিমানা অনাদায়ে একমাস কারাদণ্ড আদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, গত মঙ্গলবার রাতে উপজেলা সদরের একটি গ্রামে এক কিশোরীর সঙ্গে একই ইউনিয়নে  এক যুবকের  বাল্যবিবাহের আয়োজন করা হয়। খবর পেয়ে ওই মধ্য রাতে কনের বাড়িতে যান উপজেলা ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) অমিত রায়। ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। তবে উভয়পক্ষই ছিলো সতর্ক, কনের বাড়িতে পৌছানোর আগেই বরকনেসহ সব অতিথি পালিয়ে যায়। পালাতে পারেনি বরযাত্রীর  একজন ও কনের ভাবী। তাদেরকে আটক করা হয়।  পরে তিনি ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে বর ও কনের অভিভাবকদের ২৬ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে একমাস কারাদণ্ড আদেশ দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।  প্রাপ্ত বয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত মেয়ের বিয়ে দিবে না মর্মে মুছালেকা দেন কনের অভিভাবক।  এ সময় উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা পপি রানী তালুকদার  ও আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

অমিত রায় ইকরা প্রতিদিনকে বলেন, বাল্যবিবাহ রোধে  উপজেলা প্রশাসন সচেষ্ট রয়েছে। সামাজিক এই ব্যাধি নিরোধে সবার সচেতন হওয়া জরুরি।