সাংসদ জুয়েল আরেং এর উন্নয়ন প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে দক্ষিণ মাইজপাড়ার চিত্র

সাংসদ জুয়েল আরেং এর উন্নয়ন প্রকল্পে পাল্টে যাচ্ছে দক্ষিণ মাইজপাড়ার চিত্র

ধোবাউড়া(ময়মনসিংহ)প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ধোবাউড়া উপজেলার ভারতীয় সীমান্তঘেষা স্বাধীনতা পরবর্তী সময় থেকে অবকাঠামোগত উন্নয়নে পিছিয়ে পড়া দক্ষিণ মাইজপাড়া ইউনিয়নে ধোবাউড়া-হালুয়াঘাট আসনের সাংসদ মি. জুয়েল আরেং এবং ধোবাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যান ডেভিড রানা চিসিমের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে দ্রুত পাল্টে যাচ্ছে দক্ষিন মাইজপাড়ার চিত্র। 

গত দু’বছরে সাংসদ জুয়েল আরেং এর বিশেষ দৃষ্টিতে নেয়া হয়েছে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প। আর চলমান প্রকল্পগুলো বাস্তবায়নে দ্রুত পাল্টে যাচ্ছে দক্ষিণ মাইজপাড়া ইউনিয়নের চেহারা। উপজেলার দক্ষিণ মাইজপাড়া ইউনিয়ন বর্তমানে পর্যটন অঞ্চল হিসেবে নতুন করে রুপ ধারণ করছে। শীঘ্রই একটি উন্নত ও পরিপূর্ণ পর্যটন এলাকা হিসেবে গড়ে উঠছে উপজেলার দক্ষিণ মাইজপাড়া ইউনিয়ন।শুক্রবার সকাল থেকে দক্ষিণ মাইজপাড়া ইউনিয়নে সাংসদ জুয়েল আরেং এর পক্ষ থেকে বরাদ্ধকৃত নয়াপাড়া গ্রামে মতিন্দ্র মানখিনের বাড়ি থেকে বর্ডার সড়ক, বর্ডার সড়ক থেকে কমলপুর মসজিদ, কড়ইগড়া বর্ডার সড়ক থেকে কালিকাবাড়ী স্কুল পর্যন্ত রাস্তা পূণঃ নির্মাণ, কালিকাবাড়ী স্কুল সংলগ্ন মসজিদ, কালিকাবাড়ী ঘাট মসজিদ, দিঘলভাগ মুক্তিযোদ্ধাদের গণকবর, কালিকাবাড়ী শাহাদতের বাড়ি সংলগ্ন বেড়িবাঁধ নির্মাণ কাজ শ্বষী খাল ব্রীজ নির্মাণ কাজসহ দিনব্যাপী বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্প পরিদর্শন করেন।ধোবাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যান ডেভিড রানা চিসিম। এসময় উপস্থিত ছিলেন, দক্ষিণ মাইজপাড়া ইউনিয়ন ইউপি চেয়াম্যান ফজলুলহক  আওয়ামীলীগের সভাপতি নায়েক দুলাল, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ডাঃ আঃ কাদির, ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক মিলন মিয়া, সাধারণ সম্পাদক আকবর আলীসহ জাতীয় শ্রমীখ লীগ ধোবাউড়া শাখার আহ্বায়ক জালাল উদ্দিন সোহাগ, যুগ্ম আহ্বায়ক বরকত উসমান, উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান রনি, যুবলীগ নেতা রুবেল পালোয়ান, ইউপি সদস্য আঃ খালেক প্রমুখ।