নেত্রকোনায় স্কুল শিক্ষকের বাড়িতে দুর্বৃত্তদের আগুন  

নেত্রকোনায় স্কুল শিক্ষকের বাড়িতে দুর্বৃত্তদের আগুন  

 নেত্রকোনা প্রতিনিধি ঃ নেত্রকোনা সদর উপজেলার আমতলা ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রামে শনিবার মধ্য রাতে স্কুল শিক্ষক মঞ্জুর রহমানের বাড়ির খড়ের ঘর দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুন লেগে পুড়ে যায়। নেত্রকোনা ফায়ার সার্ভিসের লোকজন আগুন নেভায়। এলাকাবাসী জানান, সদর উপজেলার চরপাড়া গ্রামের গ্রামের সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক মঞ্জুর রহমানের ভাগ্নে আমতলা ইউনিয়নের ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন বুলবুলের সাথে আওয়ামী লীগের সম্মেলন নিয়ে একই গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা ওয়াদুদ মিয়া ও তার ভাই শামীম মিয়ার বিরোধ চলছিল। এ জন্য ওয়াদুদ মিয়া ও তার লোকজন শিক্ষক মঞ্জুর রহমানকে দোষারুপ করছিল। শিক্ষক মঞ্জুর রহমানকে নানাভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করছিল ওয়াদুদ ও শামীম। শনিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে দুর্বৃত্তরা মঞ্জুর রহমানের বাড়ির সামনে চৌচালা টিনের খড়ের ঘরে পেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। খবর পেয়ে নেত্রকোনা ফায়ার সার্ভিসের লোকজন ঘটনাস্থলে পৌছে এলাকাবাসীর সহায়তায় প্রায় দুইঘন্টা চেষ্টা করে আগুন নেভায়। আগুনের তাপে ঘরের পাশে থাকা আম, সুপারীসহ বিভিন্ন জাতের গাছ ঝলসে গেছে। আগুনে প্রায় সাত লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। রোববার বিকেলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ব্যাপারে রবিবার মঞ্জুর রহমানের ছেলে মোস্তাফিজুর রহমান মান্না নেত্রকোনা মডেল থানায় জিডি করেছেন। প্রত্যক্ষদর্শী চরপাড়া গ্রামের মো. স্বপন মিয়া বলেন, মঞ্জুর রহমানের বাড়ির খড়ের ঘরটি অনেক বড়। রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঘরের চারপাশে দাইদাউ করে আগুন জ¦লছিল। মনে হয় ঘরের চারপাশে পেট্রোল ছিটিয়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে। চিৎকার শুনে এসে দেখতে পাই ঘরের বেড়ায় আগুন জ¦লছে। আগুনে অনেক টাকার ক্ষতি হছে।  স্কুল শিক্ষক মঞ্জুর রহমান বলেন, আমার ভাগ্নের সাথে সম্মেলন নিয়ে ওয়াদুদ মিয়ার দ্বন্ধ চলছিল। আমার সাথে ব্যক্তিগতভাবে কারো কোন শত্রæতা নেই। এ জন্য আমাকে দেখে নেবে বলে হুমকি দিচ্ছিল ওয়াদুদ ও শামীম। আমার বাড়িতে পরিকল্পিতভাবে আগুন লাগানো হয়েছে। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন অনেক চেষ্টা করে আগুন নিভিয়েছে। তা নাহলে অনেক বড় ধরনের ক্ষতি হতে পাড়ত। বিষয়টি পুলিশকে জানানো হয়েছে। 
 নেত্রকোনা মডেল থানার (ওসি) মো. তাজুল ইসলাম জানান, সদর উপজেলার চরপাড়া গ্রামে আগুন লাগার বিষয়ে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি তদন্ত করে যথাযথ আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।