পূর্বধলায় প্রতিপক্ষকে রামদা দিয়ে আঘাত করায় রতন মিয়া গ্রেফতার

পূর্বধলায় প্রতিপক্ষকে রামদা দিয়ে আঘাত করায় রতন মিয়া গ্রেফতার

 

পূর্বধলা (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি: নেত্রকোনার পূর্বধলায় ধলামূলগাঁও ইউনিয়নের দত্তকুনিয়া গ্রামে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষ মো: তারা মিয়া (৩৭) কে রামদা দিয়ে আঘাত করায় মোঃ রতন মিয়া (৩৫) নামের একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার (৩০ নভেম্বর) রাতে রতন মিয়ার নিজ ঘর থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত রতন মিয়া উপজেলার দত্তকুনিয়া গ্রামের ফজল হকের ছেলে এবং জখমী তারা মিয়া দত্তকুনিয়া গ্রামের মৃত শেখ শামছুদ্দিনের ছেলে ।

জানা যায়, শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) বেলা ১০ ঘটিকার দিকে জখমীদের স্বত্বদখলীয় জমি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা করিলে জখমী তারা মিয়া বাঁধা সৃষ্টি করলে একই গ্রামের ফজল হকের হুকুমে ছেলে মো: আলামিন তারা মিয়াকে আটকিয়ে রাখে এবং ফজল হকের অপর ছেলে রতন মিয়ার হাতে থাকা রামদা দিয়ে খুন করার উদ্দেশ্যে তারা মিয়ার মাথায় কুপ দিয়ে গুরুতর আহত করে। রতন মিয়া গংদের হাতে থাকা লোহার রড দিয়ে শিউলীকে আঘাত করে। পরে এলাকাবাসী গুরুতর আহত অবস্থায় তারা মিয়া ও শিউলী কে পূর্বধলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এব্যাপারে পূর্বধলা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পূর্বধলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান বলেন, এ বিষয়ে অভিযোগ পেয়ে সত্যতা নিশ্চিত করে মামলা রেকর্ড করা হয়। সোমবার রাতে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে এরং আজ থাকে সোপর্দ করা হয়।