পূর্বধলায় ভুল চিকিৎসায় ১ শিশুর মৃত্যু, চিকিৎসককে জেল হাজতে প্রেরণ

পূর্বধলায় ভুল চিকিৎসায় ১ শিশুর মৃত্যু, চিকিৎসককে জেল হাজতে প্রেরণ

পূর্বধলা প্রতিনিধি: নেত্রকোনার পূর্বধলায় ভূল চিকিৎসা দেওয়ায় জোনাকি (০১) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে এবং চিকিৎসককে নেত্রকোনা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মারা যাওয়া শিশুটি উপজেলার ভিতরগাঁও গ্রামের জাহাঙ্গীর আলমের কন্যা।
সূত্রে জানা যায়, ১৭ নভেম্বর, মঙ্গলবার জাঙ্গীর আলম ও তার স্ত্রী বিকেলে জোনাকির মাথায় টিউমারের চিকিৎসার জন্যে উপ সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার ডা: মো. গোলাম মোস্তাফার প্রাইভেট চেম্বার মা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে নিয়ে আসলে চিকিৎসা শুরু হওয়ার পরে তার মৃত্যু হয়।
নিহতের বাবা মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, মঙ্গলবার বিকেলে মাথার টিউমারের জন্য ডা. মোস্তফার কাছে নিয়ে আসলে তার চিকিৎসায় ইনজেকশন পোস্ট করার সাথে সাথে খিঁচুনি হয়। তারপর হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।
উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাক্তার ওয়াহিদুর রহমান খান বলেন, বিকেল ৫টায় ওই রোগীকে খিঁচুনি অবস্থায় নিয়ে আসলে অক্সিজেন দেওয়ার সাথে সাথেই তার মৃত্যু হয়।
উপ সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার ডা. মো. গোলাম মোস্তফার সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, তাকে একটি সাধারণ ইনজেকশন পোস্ট করার পর তার খিঁচুনি সৃষ্টি হয়, সাথে সাথে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কি থেকে কি হয়ে গেল তা বুঝতে পারছিনা।
ভারপ্রাপ্ত আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা: আজহারুল ইসলাম জানান, এই ঘটনার প্রেক্ষিতে পূর্বধলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মেডিকেল অফিসার ডা: আজহারুল ইসলাম, ডা: ওয়াহিদুর রহমান খান ও উপসহকারী মেডিকেল অফিসার গণেশ চন্দ্র পাল এই তিন সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটি খুব দ্রæতই তাদের প্রতিবেদন দেবে বলে আশা করছি।
পূর্বধলা থানার অফিসার ইন-চার্জ মোহাম্মদ তৌহিদুর রহমান বলেন, এ ঘটনার পরে কৌশলগত ভাবে আমরা ডাক্তার ডা: মো. গোলাম মোস্তাফাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসি। মামলার বাদী না পাওয়ায় ডাক্তারকে ১৫৪ এ নেত্রকোনা জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।