বারহাট্টায় ইউপি সদস্যকে হাত পা বেঁধে হত্যার চেষ্টা ঃ হাসপাতালে ভর্তি

বারহাট্টায় ইউপি সদস্যকে হাত পা বেঁধে হত্যার চেষ্টা ঃ হাসপাতালে ভর্তি

এ কে এম আব্দুল্লাহ, নেত্রকোনা ঃ নেত্রকোনা জেলার বারহাট্টা উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের এক ইউপি সদস্যকে বসতঘরে হাত পা বেঁধে হত্যার চেষ্টা করেছে দুবৃর্ত্তরা।
     স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বারহাট্টা উপজেলার রায়পুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য ফেরদৌস রহমান (৪৫) প্রতিদিনের মতোই বৃহষ্পতিবার রাতে তার নিজ বসত বাড়ি চরপাড়া গ্রামে ঘুমাচ্ছিল। ওইদিন গভীর রাতে দুবৃর্ত্তরা ঘরের বেড়া কেটে ভেতরে প্রবেশ করে ইউপি সদস্য ফেরদৌসের হাত পা ও মুখ বেঁধে বেদড়ক মারধর করে অচেতন অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। সকালে  বাড়ির অন্যান্য সদস্যরা ফেরদৌসের কোন সাড়া শব্দ না পেয়ে ঘরে গিয়ে তাকে হাত পা ও মুখ বাঁধা অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করে। পরে তাকে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
     রায়পুর ইউপি চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান রাজু সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, পূর্ব শত্রুতার জের ধরে এ ঘটনাটি ঘটে থাকতে পারে। আহত ফেরদৌসের চিকিৎসা চলছে। কিছুটা সুস্থ হলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।
     বারহাট্টা থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ বদরুল আলমের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনাটি শুনেছেন বলে জানান। আহত মেম্বার ফৌরদৌস লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।