ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মাঝি হতে চান শফিকুল ইসলাম চন্দু  

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নৌকার মাঝি হতে চান শফিকুল ইসলাম চন্দু  

আফজাল হোসেন, বারহাট্টা প্রতিনিধি  :  নেত্রকোনা বারহাট্টা উপজেলা ৪ নং আসমা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রতীক নৌকার মাঝি হতে চান শফিকুল ইসলাম চন্দু। তিনি অনেক আগে থেকেই মানুষের দুয়ারে দুয়ারে ঘুরছেন। শফিকুল ইসলাম চন্দু বারহাট্টা উপজেলা ছাত্র  লীগের সফল সভাপতি ছিলেন। রাজনৈতিক জীবনে দলের সংগে কোনদিন বিরুদিতা করেননি। তিনি ২০১৬ এর নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে ৪০ ভোটে পরাজিত হয়েছিল। এলাকার বিশিষ্ট ব্যবসায়ী তাজুল ইসলাম বলেন গত বছর চন্দু ভাই স্বরযন্ত্রের শিকার হয়ে হেরেছিল। এই বছর জননেত্রী শেখ হাসিনা যদি চন্দু ভাইকে নৌকা প্রতীক দেন তাহলে আমরা আসমা ইউনিয়ন বাসী তাকে বিপুল ভোটে নির্বাচিত করবো ইনশাআল্লাহ। শফিকুল ইসলাম চন্দু বলেন নৌকা যার আমি তার নৌকা প্রতীকের জন্য আমি আবারও আমার প্রাণপ্রিয় নেত্রীর কাছে যাব, আমি শতভাগ আশাবাদী এই বছর নিশ্চিত জয়লাভ করবো ইনশাআল্লাহ। তিনি বলেন আমাকে গত নির্বাচনে আওয়ামী লীগের  বিদ্রোহীরা স্বরযন্ত্র করে পরাজিত করেছে। এবার আর সেই সুযোগ পাবে না। তিনি আরও বলেন আমি সব সময় নৌকার সংগে ছিলাম এখনও আছি ভবিষ্যতেও থাকবো। নির্বাচন আসলে আওয়ামী লীগের কিছু নেতা কর্মী অর্থ্যের জন্য আনারস ও ঘোড়া মার্কার কর্মী হয়ে যায় কিন্তু আমি চন্দু হাজার প্রতিকূলতার মধ্যেও এই দুর্নীতি করিনি। আমি আশাবাদী ৪ নং আসমা ইউনিয়নে এই বছর নৌকার বিজয় হবেই। আগামী নির্বাচনে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে আমি ছাড়া অন্য কেউও যদি নৌকা প্রতীক নিয়ে আসে তবুও জয় নিশ্চিত করতে কোমর বেঁধে মাঠে কাজ করবো ইনশাআল্লাহ। পাশাপাশি তিনি  সকলকে নৌকার পক্ষে কাজ করার আহবান জানান।