পূর্বধলার আগিয়া ইউনিয়নে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়

পূর্বধলার আগিয়া ইউনিয়নে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়

আল মুনসুর : ‘নিরাপদ নারী,নিরাপদ দেশ, সুখী সমৃদ্ধি বাংলাদেশ’ "নারী ধর্ষন ও নির্যাতন বন্ধ করি, নারী বান্ধব দেশ গড়ি", বন্ধ হোক নারী নির্যাতন, নিশ্চিত হোক দেশের উন্নয়ন" এই প্রতিপাদ্য শ্লোগান বস্তবায়নের লক্ষ্যে নেত্রকোণার পূর্বধলায় ৭নং আগিয়া ইউনিয়নে শনিবার (১৭ ই অক্টোবর) দেশে চলমান ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশিং সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।
শনিবার বেলা ১০ ঘটিকায় উপজেলার ৭নং আগিয়া ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে বিট পুলিশ অফিসার সাব-ইন্সপেক্টর মো: নাজিম উদ্দিন এর সভাপতিত্বে ও সহকারী সাব-ইন্সপেক্টর মো: রমজান আলী সহযোগীতায় এবং ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মীর কাশেমের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন, অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো: রফিকুল ইসলাম, বিশেষ অতিথি আগিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম রুবেল, গিয়াস উদ্দিন রাহার, ইউপি সদস্য এরশাদ মিয়া, আ: সালাম, মো: লকুজ মিয়া, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান মো: রনি মিয়া প্রমূখ। 
এছাড়াও মহিলা ইউপি সদস্য, এলাকার স্কুল-কলেজ পড়–য়া শিক্ষার্থী, অভিভাবক সহ সচেতন মহলের লোকজন বক্তব্য রাখেন।
বক্তারা বলেন, ছেলে-মেয়ে আমার, আমাকেই সচেতন ও দায়িত্ববান হতে হবে। তাদেরকে মাদক হতে দূরে রাখতে হবে। ধর্মীয় অনুভূতি জাগিয়ে তুলতে হবে। এছাড়া ধর্ষণের শাস্তি মৃত্যুদন্ড করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কে ধন্যবাদ জানিয়ে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী বিট পুলিশি কে সার্বিক সহযোগিতা করার আশ্বাস দেন।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে জানান, ধর্ষণ ও নারী প্রতিরোধ গড়ে তুলতে সকলের সহযোগী দরকার। বিট পুলিশ কি এবং পুলিশি সেবা ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে আলোচনা করেন। সপ্তাহে রবি, সোম ও মঙ্গল বার ইউনিয়ন পরিষদে বিট পুলিশ অফিসার কে সকলের অভিযোগ জানানোর আহবান জনান। এছাড়াও ইউনিয়ন পরিষদে বিট পুলিশ অফিসার সহ উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের ফোন নম্বর থাকবে। তাছাড়া কারো ফোনে টাকা না থাকলেও জরুরী প্রয়োজনে ৯৯৯ এ কল দিয়ে সেবা গ্রহণ করতে পারবে।