কেন্দুয়ায় ধর্ষকদের ফাঁসি চেয়ে অবস্থান ধর্মঘট ও স্বারক লিপি প্রদান

কেন্দুয়ায় ধর্ষকদের ফাঁসি চেয়ে অবস্থান ধর্মঘট ও স্বারক লিপি প্রদান

কেন্দুয়ায় প্রতিনিধি  : নেত্রকোণার কেন্দুয়ায় ধর্ষকদের একমাত্র শাস্তি মৃত্যুদন্ডের দাবীতে অবস্থান ধর্মঘট ও স্বারক লিপি প্রদান করেছে উপজেলা নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটি। রোববার উপজেলা চত্বরে উপজেলা নির্বাহী অফিস কার্যালয় সামনে বেলা ১১টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত স্থানীয় এনজিও স্বাবলম্বী উন্নয়ন সমিতি সহায়তায়
এ কর্মসূচি পালন শেষে স্বারক লিপি প্রদান করা হয়। স্থানীয় এনজিও স্বাবলম্বী উন্নয়ন সমিতি এসময় সংগঠনের নেতা ও কর্মীগণ বিভিন্ন ¯েøাগান সম্বলিত পেস্টুন নিয়ে মাটিতে বসে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন বিরোধী নানান ¯েøাগন তুলেন। অবস্থান কর্মসূচি শেষে ৯টি দাবী সম্বলিত একটি স্বারক লিপি দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে। দাবীগুলো হলো-ধর্ষনের ঘটনা সংগঠিত হওয়ার পর সঠিক এবং সময়মত মেডিকেল রিপোর্ট প্রদান এবং বাদীকে সঙ্গে সঙ্গে রিপোটের কপি প্রদান। হত্যার ঘটনায় সুরতহাল ময়না তদন্ত রিপোর্ট সঠিক এবং সময়মত প্রদান করা। আইনে উল্লেখিত সময়ের মধ্যে তদন্ত কাজ শেষ করা এবং প্রতিবেদন জমা দেওয়া। সাক্ষীগণের নিরাপদে  সাক্ষ্যপ্রদানে যথাযথ উদ্যোগ নেওয়া। চাঞ্চল্যকর মামলাগুলোকে দ্রæত নিষ্পত্তির জন্য দ্রæত বিচার আইনে স্থানান্তর করা। সরকারি আইনজীবিদের দ্বারা পরিচালিত নারী ও শিশু নির্যাতন ট্রাইবুনালের মামলা সমূহের নিয়মিত মনিটরিংয়ের ব্যবস্থা করা। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও কর্মক্ষেত্রে হাইকোর্টের রুল অনুযায়ী যৌন নির্যাতিত প্রতিরোধে অভিযোগে কমটি গঠন ও কার্যক্রম মনিটরিংয়ের ব্যবস্থা করা। মামলার দীর্ঘসূত্রিতা কারনে আজকের এই অপরাধের মহামারি,তাই সংঘটিত সকল চাঞ্চল্যকর মামলাগুলো বিবেচনায় নিয়ে দ্রæত নিষ্পত্তি করা। যাতে করে সমাজে এই ধরণের অপরাধ ঘটে সেজন্য সরকারি এবং বেসরকারি উদ্যোগে সচেতনতামূলক কার্যক্রম বৃদ্ধি করা। এসময় নারী নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সাধারণ সম্পাদক কল্যানী হাসানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সভাপতি সভাপতি রহিচ উদ্দিন মাস্টার,সংগঠনের নেতা রাখাল বিশ্বাস, আবুল হাশেম বাঙ্গালী,জহিরুল ইসলাম,আজিজুল ইসলাম ও মহিউদ্দিন সরকার প্রমূখ।