পূর্বধলা ধলামূলগাঁও ইউপি উপ-নির্বাচনে  ১১ প্রার্থীর প্রতীক বরাদ্ধ  

পূর্বধলা ধলামূলগাঁও ইউপি উপ-নির্বাচনে  ১১ প্রার্থীর প্রতীক বরাদ্ধ  

মোস্তাক আহমেদ খান, পূর্বধলা(নেত্রকোনা) প্রতিনিধি :নেত্রকোনার পূর্বধলা উপজেলার ধলামূলগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন গতকাল শনিবার কোন প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেননি। এর আগে গত ২৭ সেপ্টেম্বর একজন স্বতন্ত্র প্রার্থী তার মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন।ফলে প্রধান ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের প্রার্থীসহ মাঠে লড়ছেন ১১ প্রার্থী। এর মধ্যে ১০জনই স্বতন্ত্র প্রার্থী রয়েছেন।
উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানাগেছে, গতকাল শনিবার (০৩ অক্টোবর) সকাল-৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যনÍ ধলামূলগাঁও ইউপি’র উপ-নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে কোন প্রার্থী তাদের মনোনয়ন পত্র প্রত্যাহার করেনি।
উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রির্টানিং অফিসার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন আহমেদ জানান, ধলামূলগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ উপ-নির্বাচনে গত ২৩ সেপ্টেম্বর মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন পর্যন্ত ১৩ জন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছিলেন। পরে ২৬ সেপ্টেম্বর মনোয়নপত্র যাচাই-বাছাইয়ে ঋণ খেলাফির দায়ে মো. আব্দুল আমিন ফকির প্রার্থীর প্রার্থীতা বাতিল হয় এবং গত ২৭ সেপ্টেম্বর মো. শেখ বিজয় নামের এক স্বতন্ত্র প্রার্থী তার মনোনয়নপত্র প্রত্যার করেন। বর্তমানে ওই উপ নির্বাচনে ১১জন প্রার্থী প্রতিদন্ধিতা করছেন।তাদেও মধ্যে আজ (৪ অক্টোবর)প্রতীক বরাদ্ধ হয়।সে সকল প্রার্থীর মধ্যে কে কোন প্রতীক পেলেন, আওয়ামী লীগের মোঃ আব্দুল হালিম খান নৌকা, স্বতন্ত্র প্রার্থী মোঃ তারা মিয়া আনারস, মোঃ এনামুল হক অটোরিক্সা, আব্দুল আওয়াল টেবিল ফ্যান, মোহাম্মদ আলতাব হোসেন ঢোল, মোঃ এনামুল হক দুটি পাতা, মোঃ রেজুয়ানুর রহমান রজনিগন্ধা, মোঃ হারুন অর রশিদ টেলিফোন, ওমর ফারুক চশমা, রতন চন্দ্র সিংহ ঘোড়া ও মোঃ মাহমুদুল হাসান সিপন মোটর সাইকেল।এর পর উপজেলা নির্বাহী অফিসার উম্মে কুলসুমের সভাপতিত্বে, উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও রির্টানিং অফিসার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন আহমেদ ও সকল প্রার্থীদের উপস্তিতে নির্বাচনী আচরন বিধি নিয়ে আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়।   
উল্লেখ্য ধলামূলগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল আমীন খান গত ৩মে মৃত্যুবরণ করলে এ পদটি শূন্য হয়ে যায়। গত ১৪ সেপ্টেম্বর সোমবার এক বিজ্ঞপ্তিতে শূন্য পদের উপ-নির্বাচনের জন্য তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন।
উপ নির্বাচনের তফসিল অনুযায়ী, আগামী ২০ অক্টোবর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এ ইউনিয়নে ৩৮টি গ্রামের ৯টি ভোট কেন্দ্রের মোট ভোটার ২১হাজার ৯শ’ ২৫জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১১ হাজার ৩শ’ ৫০জন ও মহিলা ভোটার ১০হাজার ৬শ’ ৫জন।