কেন্দুয়ায় কাউন্সিলর মেম্বার সহ ৯ জুয়ারী গ্রেফতার

কেন্দুয়ায় কাউন্সিলর মেম্বার সহ ৯ জুয়ারী গ্রেফতার

মহসীন, কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি ঃ কেন্দুয়া থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে দুই কাউন্সিলর ও এক মেম্বার সহ ৯ জুয়ারীকে গ্রেফতার করে শুক্রবার দুপুরে নেত্রকোণা আদালতে পাঠিয়েছে। জুয়ারীদের গ্রেফতারের সময় পুলিশ জুয়া খেলার সরঞ্জামাদি সহ নগদ দেড় লক্ষাধিক টাকাও জব্দ করে।  বৃহস্পতিবার রাত ৯ টার দিকে অভিযান চালিয়ে কেন্দুয়া পৌরসভার সাউদপাড়া মহল্লার এনামুল হকের দুচালা টিনের ঘর থেকে তাদেরকে গ্রেফতার করে। পুলিশ জানায় এই জুয়ারীরা আন্তঃজেলার এক শক্তিশালী জুয়ারী চক্র। নিরাপত্তা বেষ্টনী তৈরি করে কঠোর নজরদারীর মাধ্যমে তারা প্রতিনিয়তই স্থান পরিবর্তন করে জুয়া খেলার আসর বসিয়ে লাখ লাখ টাকার জুয়া খেলে আসছিল। কেন্দুয়া থানার ওসি মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান জানান, এর আগে এই জুয়ারীদের ধরতে একাধিক অভিযান পরিচালনা করেও পুলিশ ব্যার্থ হয়। বৃহস্পতিবারের অভিযানে পুলিশ অনেক কৌশল অবলম্বন করে জুয়া খেলার সরঞ্জামাদি ও জুয়া বোর্ডের ১ লাখ ৫৩ হাজার ১৮৭ টাকা সহ জুয়ারীদের গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃতদের মধ্যে রয়েছে, কেন্দুয়া পৌরসভার ৯ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আব্দুল কাইয়ুম ভ‚ঞা, ৫ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আনিসুর রহমান রতন, কান্দিউড়া ইউনিয়নের রাজীবপুর গ্রামের মেম্বার মোঃ আবু হারেছ, চিরাং ইউনিয়ন যুবলীগের সম্পাদক ছিলিমপুর গ্রামের মোঃ মোস্তফা, সাউদপাড়া গ্রামের রতন মিয়া, হায়দার আলী, আরামবাগের ব্যাবসায়ী জুয়েল মিয়া ও পিজাহাতি গ্রামের উপজেলা কৃষক দলের সভাপতি রেজাউল হাসান সুমন। এছাড়া কিশোরগঞ্জের তাড়াইল উপজেলার ধলা গ্রামের আব্দুর রহিমের ছেলে বিল্লাল হোসেনও রয়েছে। এ ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে দুইজন পলাতক আসামী সহ থানায় নিয়মিত মামলা দায়ের করেছে। মাদক ও জুয়া মুক্ত কেন্দুয়া গড়ার অঙ্গীকারে করোনাকালেও পুলিশের এ অভিযান অব্যহত থাকবে বলে ওসি মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান জানান।