করোনার উপসর্গ নিয়ে নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে একজন ব্যবসায়ী ও আটপাড়ার একজন মুক্তিযোদ্ধার নারায়নগঞ্জে মৃত্যু

করোনার উপসর্গ নিয়ে নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে একজন ব্যবসায়ী ও আটপাড়ার একজন মুক্তিযোদ্ধার নারায়নগঞ্জে মৃত্যু

এ কে এম আব্দুল্লাহ, নেত্রকোনা ঃ করোনা উপসর্গ নিয়ে নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জে একজন ব্যবসায়ী এবং আটপাড়া উপজেলার একজন মুক্তিযোদ্ধা নারায়নগঞ্জে মারা গেছেন।

      মোহনগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডাঃ সুবীর সরকার জানান, মোহনগঞ্জ পৌরসভার রাউতপাড়া এলাকায় শুক্রবার রাত ১০টার দিকে গৌরাঙ্গ পাল (৪৫) নামক একজনের মৃত্যু হয়েছে। মৃত গৌরাঙ্গ পাল মোহনগঞ্জ উপজেলার গাগলাজুর ইউনিয়নের গাগলাজুর চৌড়াপাড়া গ্রামের মৃত প্রফুল্ল চন্দ্র পালের ছেলে। সে সিলেটসহ বিভিন্ন জায়গায় ভ্রাম্যমান ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করে আসছিল।

      তিনি আরো জানান, গৌরাঙ্গ বৃহস্পতিবার গাগলাজুর চৌড়াপাড়া গ্রামের বাড়ী থেকে করোনার উপসর্গ জ্বর, সর্দি, কাশি, গলা ব্যাথা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে মোহনগঞ্জ হাসপাতালে আসে। কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক ভাবে তাকে দেখার পর করোনা রোগী সন্দেহ হওয়ায় তার শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে বাসা বা বাড়ীতে আইসোলেশনে থাকার পরমর্শ দিয়ে ছেড়ে দেয়।  পরে গৌরাঙ্গ মোহনগঞ্জ পৌরসভার রাউতপাড়া এলাকায় তার ভাগ্নের বাসায় চলে যায়। শুক্রবার রাতে তার শ্বাস কষ্ট বেড়ে যাওয়ায় তিনি রাত ১০টার দিকে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েন।

     খবর পেয়ে শনিবার সকালে মোহনগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডাঃ সুবীর সরকার, পৌর কাউন্সিলর আব্দুর রাজ্জাক, স্বাস্থ্য পরিদর্শক শ্যামল চৌধুরী রাউতপাড়ার বাসায় গিয়ে গৌরাঙ্গ পালের শেষ কৃত্যানুষ্ঠানের নিয়ম কানুন বলে দেন।

      এ সময় ভাগ্নের বাসায় অবস্থিত ৪ জনের শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয় এবং তাদেরকে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়।

     অপরদিকে আটপাড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহফুজা সুলতানা জানান, আটপাড়া উপজেলার দুওজ ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা হাসিম উদ্দিন (৭২) করোনা উপসর্গ নিয়ে নারায়নগঞ্জে থাকা তার সন্তানদের কাছে শুক্রবার রাত ৮ টার দিকে মারা গেছেন।

  উপজেলা নির্বাহী অফিসার মৃতের সন্তানদের বরাত দিয়ে জানান, মুক্তিযোদ্ধা হাসিম উদ্দিন বেশ কিছুদিন পূর্বে নারায়নগঞ্জে অবস্থিত তার সন্তানদের কাছে বেড়াতে যান। সেখানে বেশ ক’দিন ধরেই তিনি জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাস কষ্টে ভুগছিলেন। গত শুক্রবার রাতে ৮ টার দিকে করোনা উপসর্গ নিয়ে তিনি মৃত্যুবরণ করেন।

তার মৃতদেহ শনিবার সকাল ১১টার দিকে নেত্রকোনা জেলার আটপাড়া উপজেলার দুওজ ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রামে নিয়ে আসা হয়। বাদ জোহর উপজেলা চেয়ারম্যান হাজী খায়রুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহফুজা সুলতানা ও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ আলী হোসেনসহ বিভিন্ন স্তরের মুক্তিযোদ্ধাদের উপস্থিতিতে জানাযা শেষে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়।