পূর্বধলায় জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান মনি কর্মকারের দাঁড়ি টুপি রোজা নামাজ নিয়ে কটুক্তি ॥ সর্বত্র নিন্দার ঝড়, থানায় অভিযোগ

পূর্বধলায় জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান মনি কর্মকারের দাঁড়ি টুপি রোজা নামাজ নিয়ে কটুক্তি ॥ সর্বত্র নিন্দার ঝড়, থানায় অভিযোগ


 সাদ্দাম হোসেন,পূর্বধলা (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি:নেত্রকোণার পূর্বধলায় জাতীয় মহিলা সংস্থার নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান মনি রানী কর্মকার ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে কবিতা লিখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর ব্যাপক সমালোচিত হয়েছেন। এটা সম্পূর্ণ নোংরা মনের পরিচয়, বিকৃত মনের পরিচয়। তিনি সম্পূর্ণ নোংরা ও বিকৃত রুচির পরিচয় দিয়েছেন। তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী উঠেছে। মনির শাস্তির চেয়ে পূর্বধলা থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।
পহেলা বৈশাখে (১৪ এপ্রিল) ফেসবুকে ‘তোরা চাল চোর’ নামের একটি কবিতায় কুরুচিপূর্ণ শব্দ ব্যবহারের মাধ্যমে তিনি ‘ধর্মীয় ভাবমানসে চরম আঘাত’ দিয়েছেন। তিনি কবিতায় দুটি লাইনে উল্লেখ করেছেন “প্রকাশ্যে তোদের দাঁড়ি টুপি রোজা নামাজ, আড়ালে তোরা হারাম খোর” এ নিয়ে ফেসবুকে চরম ঘৃণা ও ব্যাপক সমালোচনার মুখে পরেন মনি। ফেসবুক ব্যবহারকারিদের তোপের মুখে তিনি তার কবিতাটি ডিলেট করে দেন এবং পরবর্তী পোস্টের মাধ্যমে নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়েছেন তিনি।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ধর্মীয় অনুভূতি ও মূল্যবোধে আঘাত করে এ রকম যে কোনো কর্মকাণ্ডের বিরুদ্ধে বর্তমান সরকার কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে সর্বদা সচেতন রয়েছে। তাই পূর্বধলা উপজেলার সকল ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন। ধর্মীয় অনুভূতি ও মূল্যবোধে আঘাত করে কবিতা লেখার দায়ে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেন সর্বস্তরের তৌহিদী জনতা।
মনি রানী কর্মকার ফেসবুকে তার ব্যক্তিগত আইডি থেকে মুসলিমদের ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে কবিতা পোস্ট দেওয়ায় উপজেলার গিরিয়াসা গ্রামের মোঃ আশরাফুল আলম মিন্টুর ছেলে মোঃ শেখ ফরিদ বাদী হয়ে গতকাল বুধবার (১৫ এপ্রিল) পূর্বধলায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।
পূর্বধলা থানার ওসি মোহাম্মদ তাওহীদুর রহমান জানান, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।