সরকারি নির্দেশনা না মানায় ইউপি চেয়ারম্যানের আবেগঘণ স্ট্যাটাস

 সরকারি নির্দেশনা না মানায় ইউপি চেয়ারম্যানের আবেগঘণ স্ট্যাটাস

মদন, প্রতিনিধি : বিশ্বে করোনাভাইরাস মহামারি অবস্থায় জীবন মৃত্যুর সন্ধিক্ষণে যেখানে  শহর গ্রাম লকডাউন অবস্থায় রয়েছে সেখানে হাট-বাজার ও চায়ের দোকান গুলোতে লোকজনের ভিড় থাকায় মনের কষ্টে  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইস বুকে আবেগঘণ স্ট্যাটাস দেন মদন উপজেলার কাইটাইল ইউপি চেয়ারম্যান সাফায়েত উল্লাহ রয়েল।
উপজেলা প্রশাসন,সেনা বাহিনী ও পুলিশ করোনা প্রতিরোধে সরকারি নীতি মালা জনগণ মেনে চলার জন্য বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। জনগণ নিয়মনীতি তোয়াক্কা না করে ফার্মেসি কিংবা ওষধের দোকান,কাঁচাবাজার ও নিত্য প্রয়োজনীয় জরুরি পণ্যের দোকান সমূহ খোলা রাখলে অহেতুক দোকানে ভিড় জমাচ্ছে। প্রশাসনের লোকজন পৌঁছলে  লোকজন এদিক সেদিক দৌড়ে পালিয়ে যায়। প্রশাসনের লোকজন চলে গেলে  আবার তারা দোকানে ভিড় করে। এতে গ্রামের লোকজন করোনা আক্রান্তে ঝুঁকি ও আতংকে রয়েছে।  

এরই আলোকে কাইটাইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাফায়েত উল্লাহ রয়েল নিজের ফেইস বুক ফেইসে আবেগঘন স্ট্যাটাসটি দেন। যা হুবহুব তোলে ধরা হলো ,
 কি আর করব এতবার মাইকিং করানোর পরেও লোকজন সমাগম হয়ে হাট বাজার করে যাচ্ছে , চায়ের দোকান বন্ধ করা যাচ্ছেনা, বন্ধ করা যাচ্ছে না আড্ডা। আজকে জাওলা বাজারে প্রচুরসংখ্যক লোক সমাগমে হাট বাজার চলেছে, আমি প্রতি বাজারের সভাপতিকে ফোন করে বলেছি, মাইকিং করিয়াছি তারপরেও লোকজনের সমাগম বন্ধ করা যাচ্ছেনা। কিছু মানুষ আরও সমালোচনা করে বিভিন্ন ধরনের বাজে কথাও বলে, আমার কানে আসে এগুলো কথা, তারপরেও আমি চেষ্টা করে যাব ইনশাআল্লাহ যে যাইক বলুক আল্লাহ তায়ালা কাছে দোয়া চাই আল্লাহ তায়ালা যেন পৃথিবীর সকল কে আজাব থেকে রক্ষা করেন, আমিন ।
স্ট্যাটাসের প্রেক্ষিতে কেহ বলেছেন,প্রশাসনের সহায়তা নিলে এই রকম সমাবেশ হবেনা,
 আবার কেহ বলেছেন ,ইনি প্রশাসন আনলে বিদ্রোহীরা বলবে ক্ষমতার দাপট দেখাচ্ছে। কেহ বুঝতে চেষ্টা করে না কি হচ্ছে।
 অন্য একজন বলেছেন, আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি আমাদের দেশে বর্তমান পরিস্থিতি হুমকির মুখে কে ভালো কে মন্দ বলল সেটা নিয়ে এখন ভাবা যাবে না এই মুহূর্তে মানুষের ছোট ছোট ভূলের কারণে জাতির অস্তিত্বের উপর আঘাত হানতে পারে। চেয়ারম্যান হিসেবে বলি আর সচেতন নাগরিক হিসেবে বলি তুমি যা করছো এলাকা তথা দেশের জন্য ভালো কিছু তোমার কাজ তুমি চালিয়ে যাও। কিসের জন্যে প্রশাসন এত কঠোর হচ্ছে এটা জনগণ বুঝতে চায় না......হসপিটাল করবে এটা ও জনগণ করতে দেয় না....
জাতি হিসাবে আমরা এতোটাই খারাপ যে সারা বিশ্বে এমন জাতি একটা ও খুঁজে পাওয়া যাবে না।
স্ট্যাস্টাস সর্ম্পকে জানতে চাইলে বৃহস্পতিবার চেয়ারম্যান সাফায়েত উল্লাহ রয়েল  বলেন, সরকার যে পদক্ষেপ নিয়েছেন সেই ক্ষেত্রে আমরা প্রত্যেকে আরো সচেতন হলে এই পরিস্থিতি মোকাবেলা করা সম্ভব বলে আমি মনে করি। পাশাপাশি আমি ব্যাক্তিগত উদ্যোগে  দেশ বিদেশ থেকে গ্রামে আগত প্রত্যেকটি পরিবারের  মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করেছি যাদের নেই তাদের বাড়ির পাশের নম্বর সংগ্রহ করেছি। ৫/৬ বার মাইকিং করেছি এর পরেও মানুষকে সচেতন করতে পারছি না।  নিজেই বাজার মনিটরিং করছি। তাই মনের কষ্টে এই স্ট্যাটাসটি দিয়েছি।
ছবি সংযুক্ত ঃ চেয়ারম্যানের আবেগঘন স্ট্যাটাস ও ইউপি চেয়ারম্যান
সাফায়েত উল্লাহ রয়েল।