মুজিব বর্ষে সকল অসহায়, দুস্থ, হত-দরিদ্র, বিধবা, প্রতিবন্ধী ও স্বামী পরিত্যক্তা বয়স্ক ব্যক্তিদের ভাতার আওতায় নিয়ে আসা হবে ----সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী

 মুজিব বর্ষে সকল অসহায়, দুস্থ, হত-দরিদ্র, বিধবা, প্রতিবন্ধী ও স্বামী পরিত্যক্তা বয়স্ক ব্যক্তিদের ভাতার আওতায় নিয়ে আসা হবে ----সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী

এ কে এম আব্দুল্লাহ, নেত্রকোনা ঃ সমাজ কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান খসরু এমপি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এ দেশের মানুষকে স্বাধীনতা এনে দিয়েছেন আর তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ দেশের মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে কাজ করছেন। এ দেশের একজন মানুষও যাতে গৃহহীন না থাকে এবং একজন মানুষও যাতে ক্ষুধার জ্বালায় কষ্ট না পায় তার জন্য সামাজিক নিরাপত্তার আওতায় বিভিন্ন কার্যকর পদক্ষেপ নিয়েছেন। বিশেষ করে সমাজের পিছিয়ে পড়া অসহায়, দুস্থ, হত-দরিদ্র, স্বামী পরিত্যক্তা, বিধবা, প্রতিবন্ধী ও বয়স্ক ব্যাক্তিদের কল্যাণে সরকার ভাতা প্রদানের ব্যবস্থা করেছে। সাধারণ লোকজন এর সুফল পাচ্ছে।  তিনি বলেন, শেখ হাসিনার সরকার মুজিব বর্ষে সকল অসহায়, দুস্থ, হত-দরিদ্র, স্বামী পরিত্যক্তা, বিধবা, প্রতিবন্ধী ও বয়স্ক ব্যাক্তিদের ভাতা প্রদানের আওতায় নিয়ে আসবে। তিনি সত্যিকার অর্থে যারা ভাতা পওয়ার যোগ্য তাদেরকে সঠিক তালিকাভূক্ত করতে সরকারী কর্মকর্তা ও জনপ্রতিনিধিদের প্রতি উদাত্ত আহবান জানান। তিনি বুধবার দুপুরে নেত্রকোনা সদর উপজেলা সমাজ সেবা বিভাগের উদ্যোগে মৌগাতী ইউনিয়ন পরিষদ চত্বরে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে ভাতাভোগীদের বাছাই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষনে এসব কথা বলেন।
   মৌগাতী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা প্রশাসক মঈনউল ইসলাম, নেত্রকোনা সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান অধ্যাপক তফসির উদ্দিন খান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদা আক্তার, জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী প্রতিমন্ত্রীর সহধর্মিনী কামরুন্নেছা আশরাফ দীনা, প্রেসক্লাব সম্পাদক শ্যামলেন্দু পাল, রেডক্রিসেন্টের সেক্রেটারী গাজী মোজাম্মেল হোসেন টুকু, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল খালেক তালুকদার, সমাজ সেবা বিভাগের উপ-পরিচালক মোঃ আলাল উদ্দিন ও শহর সমাজসেবা কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন প্রমূখ।
      পরে উন্মুক্ত পদ্ধতিতে প্রতিবন্ধী, বিধবা ও বয়স্ক ভাতা ভোগীদের বাছাই করা হয়।