মোহনগঞ্জে বিমান বাংলাদেশের চেয়ারম্যানকে গণসংবর্ধণা

 মোহনগঞ্জে বিমান বাংলাদেশের চেয়ারম্যানকে গণসংবর্ধণা

ইক্ রা প্রতিদিন ডেক্স  : নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও সম্মিলিত নাগরিক সমাজের উদ্যোগে সোমবার সন্ধ্যায় মোহনগঞ্জ পৌর শহরের শহীদ আলী ওসমান ময়দানে বিমান বাংলাদেশ পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সাবেক সিনিয়র সচিব সাজ্জাদুল হাসানকে গণসংবর্ধণা দেয়া হয়েছে।
  মোহগনঞ্জ উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ও মুক্তিযোদ্ধা মির্জা আবদুল গণির সভাপতিত্বে সংবর্ধণা অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন-  জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি, কলমাকান্দা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আবদুল খালেক তালুকদার, জেলা আওয়ামী লীগের অপর সহ সভাপতি হাবিবুর রহমান খান রতন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক নেত্রকোনা পৌর সভার মেয়র নজরুল ইসলাম খান, যুগ্ন সম্পাদক নূর খান মিটু, যুগ্ন সম্পাদক ও নেত্রকোনা জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান প্রশান্ত কুমার রায়, মোহনগঞ্জ পৌর  মেয়র অ্যাডভোকেট লতিফুর রহমান রতন, আওয়ামী লীগের জাতীয় পরিষদ সদস্য অসিত সরকার সজল, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদেও সাবেক কমান্ডার নূরুল আমীন, সদও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জিএম খান পাঠান বিমল, আটপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও আটপাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হাজি খায়রুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের ত্রান ও পূনর্বাসন বিষয়ক সম্পাদক মনোয়ার জাহান সুজন, মোহনগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মজিবুর রহমান কাচা মিয়া, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার আবদুল হক, ইউপি চেয়ারম্যান মোতাহার হোসেন চৌধুরী প্রমুখ।
 সংবর্ধণা অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত সাজ্জাদুল হাসান বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশন মিশনের লক্ষ্য অর্জনে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে। আমাদের উন্নয়নের অভিষ্ঠ লক্ষ্যে পৌঁছতে সবাইকে নিয়ে মিলে মিশে কাজ করতে চাই। বিভেদ, অনৈক্য ও রেষারেশীকে আমি অপছন্দ করি। স্থানীয় একটি মহল ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করার চেষ্টা করছে। কোন লাভ নেই, রাজনীতি নিয়ে নোংরামী করবেন না। এতে আপনার আমার সকলের ক্ষতি হবে। দীর্ঘ ৩২ বছর সততা ও নিষ্টার সাথে সরকারের বিভিন্ন পদে কাজ করেছি। শেষ পাঁচ বছর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাথে থেকে অনেক অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি। গত ১০ জানুয়ারী চাকুরী থেকে অবসরে যাবার সময় জন সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করার জন্য মনস্থির করি। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনা আমাকে জনসেবার জন্য বলেছেন। তার নির্দেশে আমি এলাকাবাসীর সেবায় কাজ করতে চাই। আমি এই বিশাল সমাবেশ দেখে অভিভুত। আপনারা আমাকে যে সম্মান দেখিয়েছে তা আমি কোন দিন ভুলব না। আমার বাবা ডা. আখলাক হোসেন আহমেদ জীবদ্দশায় এলাকার মানুষের সেবায় কাজ করেছেন। আমিও আপনাদের সেবায় নিজেকে নিয়োগ করতে চাই। সকল বেধাবেদ ভুলে আপনাপরা এক সাথে এলাকার উন্নয়নে কাজ করুন।
 ঢাকাস্থ মোহনগঞ্জ সমিতি, মোহনগঞ্জ উন্নয়নে নাগরিক আন্দোলন, শহীদ স্মৃতি উচ্চ বিদ্যালয়, মোহনগঞ্জ বাজার সমিতিসহ শতাধিক প্রতিষ্ঠান ওই গণসংবর্ধনায় সাজ্জাদুল হাসানকে ফুল ও ক্রেস্ট দিয়ে বরণ করেন। গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানস্থল জনসভায় পরিনত হয়। জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে দলীয় নেতাকর্মী, এলাকাবাসী ওই সংবর্ধণা অনুষ্ঠানে যোগ দেন। জেলা সদর থেকে মোহনগঞ্জ পর্যন্ত শতাধিক তোরণ নির্মান করা হয়।