নেত্রকোনায় বিআরটিসি বাস সার্ভিস চালুকে কেন্দ্র করে সকল প্রকার বাস চলাচল বন্ধ ঃ যাত্রীদের দুর্ভোগ

নেত্রকোনায় বিআরটিসি বাস সার্ভিস চালুকে কেন্দ্র করে সকল প্রকার বাস চলাচল বন্ধ ঃ যাত্রীদের দুর্ভোগ

এ কে এম আব্দুল্লাহ, নেত্রকোনা ঃ নেত্রকোনা-ময়মনসিংহ সড়কে বিআরটিসি বাস সার্ভিস চালু করাকে কেন্দ্র করে নেত্রকোনা আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল থেকে সকল প্রকার বাস চলাচল বন্ধ রেখে ধর্মঘট পালন করছে বাস মালিক ও শ্রমিকরা। এতে করে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন সাধারণ যাত্রীরা।
      যাত্রীদের অভিযোগ, পরিবহন মালিক ও শ্রমিকরা কিছু দিন পর পর কোন রকম পূর্ব ঘোষণা ছাড়াই অনৈতিক পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দিয়ে বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়। যার ফলে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয় ঢাকা-ময়মনসিংহে কর্মরত ও যাতায়াতকারী সাধারণ মানুষদের। সোমবার বিকাল থেকে ময়মনসিংহ ও নেত্রকোনা বাস টার্মিনালে আংশিক ধর্মঘট পালন করলেও মঙ্গলবার  সকাল থেকে হোসেনপুরস্থ আন্তঃজেলা বাস টার্মিনাল থেকে ময়মনসিংহ -ঢাকা রুটে চলাচলকারী সকল বাস চলাচল বন্ধ রেখেছে বাস মালিক ও শ্রমিকরা। তাদের দাবি, নেত্রকোনা থেকে সদ্য চালু হওয়া বিআরটিসি বাস চলাচল বন্ধ করতে হবে। অন্যথায় তারা ধর্মঘট চালিয়ে যাওয়ার কথা জানান।
       নেত্রকোনা-ময়মনসিংহ সড়কে দীর্ঘদিন যাবৎ গেইট লকের নামে লক্কর যক্কর মার্কা বাস সার্ভিসে যাত্রী সাধারণ বিরক্ত হয়ে এ রোডে বিলাস বহুল আরাম দায়ক বিআরটিসি বাস সার্ভিস চালুর দাবীর প্রেক্ষিতেই নেত্রকোনা-ময়মনসিংহ সড়কে বিআরটিসির নতুন দশটি বাস চালুর উদ্যোগ নেয়া হয়।
     উল্লেখ্য, নেত্রকোনা জেলা শহরের বিএডিসি ফার্ম গেইটের সামনে থেকে রবিবার সকালে আনুষ্ঠানিকভাবে নেত্রকোনা-ময়মনসিংহ সড়কে বিআরটিসি বাস সার্ভিস উদ্বোধন করা হয়। উদ্বোধনের ৭ ঘন্টার মধ্যে বাস মালিক ও শ্রমিকরা বাঁধা দিয়ে বিআরটিসি বাস চলাচল বন্ধ করে দেয়।
     এ ঘটনার প্রতিবাদে এবং পুনরায় বিআরটিসি বাস সার্ভিস চালুর দাবিতে গত সোমবার সকাল ১১টায় পৌরসভার সামনে নেত্রকোনাবাসীর ব্যানারে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ।