এক পাগলী নারীকে ধর্ষনের অভিযোগে বাদশা গ্রেফতার

এক পাগলী নারীকে ধর্ষনের অভিযোগে বাদশা গ্রেফতার

মহসীন কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি ঃ মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারীকে রাস্তা থেকে ধরে নিয়ে ধর্ষনের অভিযোগে বাদশা নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে বুধবার দুপুরে নেত্রকোনা আদালতে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃত বাদশা কেন্দুয়া উপজেলার সান্দিকোনা ইউনিয়নের বালুচর গ্রামের তারা মিয়ার ছেলে। ৫ নভেম্বর  মঙ্গলবার রাত অনুমান ১০টার দিকে সাহিতপুর বাজার হতে রোয়াইলবাড়ী যাওয়ার পথে পাকা রাস্তার পাশে কিনা মিয়ার বসতবাড়ির উত্তর পাশে মানসিক ভারসাম্যহীন এক নারীকে ধর্ষন করে বাদশা। এ ঘটনায় গামরুলী গ্রামের শাহজাহান মিয়ার ছেলে আরমান বাঁধা দিলে তাকেও খুন জখমের হুমকী দেয়। ঘটনার পর স্থানীয় লোকজন বাদশাকে আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ জনতার হাত থেকে উদ্ধার করে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। ওই নারীর পরিচিত কোন ব্যক্তি না থাকায় এ ঘটনায় কেন্দুয়া থানা পুলিশের এস.আই আহাদুল বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পুলিশ সুপার হিসেবে পদোন্নতি প্রাপ্ত নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) এস.এম. আশরাফুল আলম বুধবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। কেন্দুয়া থানা পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ রফিকুল ইসলাম জানান, ধর্ষনের অভিযোগে বাদশার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। ধর্ষিতা নারী কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন। এ ঘটনায় সুষ্ঠু তদন্তের পর সঠিক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।