প্রথমধাপে কেন্দুয়ায় সুপারভাইজার ও শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা হয়েছে

প্রথমধাপে কেন্দুয়ায় সুপারভাইজার ও শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা হয়েছে

মহসীন কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি ঃ    দেশ থেকে নিরক্ষরতা দূর করে বিশ্ব বুকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে চায় বাংলাদেশ। এই বাংলাদেশকে সামনের দিকে এগিয়ে নেয়ার লক্ষ্যে প্রাণপন চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় এগিয়ে যাওয়া বাংলাদেশ থেকে নিরক্ষরতা দূরীকরণে সারা বাংলাদেশে চালু হয়েছে মৌলিক স্বাক্ষরতা প্রকল্প (৬৪ জেলা)। এর আওতায় কেন্দুয়া উপজেলায় একটি পৌরসভা ও ১৩টি ইউনিয়নের ৬০০ বয়ষ্ক শিক্ষা কেন্দ্রের জন্য ৬০০ জন শিক্ষক ও ১৫ জন সুপারভাইজার নিয়োগ দেয়া হবে।
    শুক্রবার প্রথম ধাপে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ উপায়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে কেন্দুয়া পৌরসভা ও ৬টি ইউনিয়নের শিক্ষক ও সুপার ভাইজার নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা। সুপার ভাইজার নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে। এছাড়া শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয় কেন্দুয়া পৌর শহরের নারী শিক্ষা উন্নয়নের একমাত্র মাধ্যমিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সাবেরুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে।
    আরবানের উপজেলা সমন্বয়কারী আবুল আরশাদ জানান, কেন্দুয়া উপজেলার একটি পৌরসভা ও ১৩ টি ইউনিয়নে ৬০০ বয়স্ক শিক্ষা কেন্দ্রে ৬শ জন শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হবে। এসব কেন্দ্র ও শিক্ষকদের কার্যক্রম সুপারভিশন করার জন্য দেয়া হবে ১৫ জন সুপারভাইজার নিয়োগ। শুক্রবার সকাল ১০টা থেকে সুপারভাইজার নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা নেন নিয়োগ বোর্ডের সভাপতি কেন্দুয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল-ইমরান রুহুল ইসলাম। এই বোর্ডে আরো উপস্থিত ছিলেন, আরবানের নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ আরিফুজ্জামান ও উপ-আনুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো নেত্রকোণার সহকারি পরিচালক মোঃ রুহুল আমিন। এদিকে সাবেরুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৩টি বোর্ড গঠন করে শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হয়েছে। এসব বোর্ডের দায়িত্বে ছিলেন উপজেলা সমবায় কর্মকর্তা রবি শংকর পাল, উপজেলা তথ্য সেবা কর্মকর্তা অনিকা আক্তার ও উপ-আনুষ্ঠানিক শিক্ষা ব্যুরো কেন্দুয়ার প্রোগ্রাম অফিসার মোঃ আসাদুজ্জামান এবং সহকারি উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা গোলাম রাব্বানী। এই ৩ বোর্ডের প্রধানগন সহকর্মীদের নিয়ে সকাল ১০ টা থেকে বিকাল ৩ টা পর্যন্ত সুষ্ঠু ও সুন্দর ভাবে পরীক্ষা নেন।
    সাবেরুন্নেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্র পরিদর্শনে ছিলেন, আরবান প্রতিনিধি, মোঃ জায়েদুল ইসলাম, মোঃ ফিরোজ মিয়া এবং আরবানের আইটি প্রতিনিধি সুহাদা মেহজাবিন ও কেন্দুয়া উপজেলা প্রেসক্লাব সভাপতি সমকাল কেন্দুয়া প্রতিনিধি সাংবাদিক সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, কেন্দুয়া রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি আবুল কাশেম আকন্দ সহ অন্যান্য গণমাধ্যম কর্মীরা। উপজেলা সমন্বয়কারী আবুল আরশাদ আরো জানান, ৬ শ শিক্ষকের অনুকুলে ১০৫৬ জন পরীক্ষায় অংশ নেয়ার কথা রয়েছে। এর মধ্যে শুক্রবার পৌরসভা, চিরাং, মোজাফরপুর, মাসকা, কান্দিউড়া, পাইকুড়া ও নওপাড়া ইউনিয়নের ৬ শ ৩২ জন আবেদনকারী শিক্ষক নিয়োগের মৌখিক পরীক্ষায় অংশ নিয়েছেন। তিনি জানান আগামীকাল শনিবার সকাল ১০ টা থেকে সান্দিকোনা স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে একই পদ্ধতিতে শিক্ষক নিয়োগে গন্ডা, সান্দিকোনা, রোয়াইলবাড়ি ও গড়াডোবা ইউনিয়নের আবেদনকারীদের মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হবে। এছাড়া রোববার সকাল থেকে একই পদ্ধতিতে রামপুর আনোয়ারা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে দলপা, আশুজিয়া, বলাইশিমুল ইউনিয়নের শিক্ষক নিয়োগে আবেদনকারীদের পরীক্ষা নেয়া হবে। জানতে চাইলে নিয়োগ বোর্ডের সভাপতি ইউএনও আল-ইমরান রুহুল ইসলাম বলেন, সুপারভাইজার নিয়োগের ক্ষেত্রে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হয়েছে। তাছাড়া শিক্ষা নিয়োগের ক্ষেত্রে শুধুমাত্র মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। তার কার্যালয়ে সুপারভাইজার ও সাবেরুন্নেচ্ছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা অত্যন্ত সুষ্ঠু, সুন্দর ও দূর্নীতিমুক্ত ভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে। তিনি আশা প্রকাশ করে বলেন এই নিয়োগ প্রক্রিয়ায় মৌলিক স্বাক্ষরতা প্রকল্পের মাধ্যমে এখানকার নিরক্ষর ব্যক্তিদের নিরক্ষরতা দূর হবে।