মদনে দু-পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ১৫

মদনে দু-পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ আহত ১৫

মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধিঃ গৃহবধূকে শ্লীলতাহানির প্রতিবাদ করায় নেত্রকোনার মদন উপজেলায় দু-পক্ষের সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত্য ১৫জন আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত সোহেল মিয়া, এংরাজের মা, আনু মিয়া, নুর আলম,সেলিম, লাখী আক্তার, সেকুল, আমিনুর , ছলিমা, শারমিনকে মদন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যান্যদের স্থানীয় ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার মদন ইউনিয়নের বারবুড়ি গ্রামের আহম্মদের বাড়ির সামনে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানায়, বুধবার রাত আনুমানিক সাড়ে ৮টার দিকে বারবুড়ি গ্রামের মনা মিয়ার অনুপস্থিতে একই গ্রামের মেয়েলী স্বভাবের আমিনুর ও যুবক সেকুল তার বসত ঘরে প্রবেশ করে স্ত্রী লাখী আক্তারকে উত্ত্যক্ত করতে থাকলে লাখীর স্বামী মনা মিয়া ঘরে প্রবেশ করে এ দৃশ্য দেখে আনিনুরকে মারপিট করে ঘর থেকে বের করে দেয়।  ওই রাতেই লাখী আক্তার এ ব্যাপারে মদন থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে বৃহস্পতিবার সকালে আমিনুরের লোকজন লাখীকে তার বসত ঘর থেকে ছিনিয়ে নিয়ে যেতে চাইলে আহম্মদের বাড়ির সামনে দু-পক্ষের মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
ওসি মোঃ রমিজুল হক জানান, বুধবার রাতে বারবুড়ি গ্রামের লাখী আক্তার তাকে উত্ত্যক্ত করায় এক হিজড়ার বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ করেছেন। তবে শুনেছি এ ঘটনার জের ধরে বৃহস্পতিবার সকালে বারবুড়ি গ্রামে দু-পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে । এখন পর্যন্ত কোনো পক্ষ অভিযোগ দেয়নি।