দুর্গাপুরে উপজেলা নবীন লীগের সভাপতিকে কুপিয়ে হত্যা ! বিএনপির সাবেক সভাপতিসহ ৫ জন আটক

দুর্গাপুরে উপজেলা নবীন লীগের সভাপতিকে কুপিয়ে হত্যা ! বিএনপির সাবেক সভাপতিসহ ৫ জন আটক

এ কে এম আব্দুল্লাহ, নেত্রকোনা ঃ পূর্ব শত্রæতার জের ধরে দূর্গাপুর উপজেলা নবীন লীগের সভাপতি মোঃ কাওসার তালুকদারকে (২১) নৃশংসভাবে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে নেত্রকোনা জেলার দুর্গাপুর উপজেলা সদরের পুলিশ মোড়ে। এ ঘটনায় দূর্গাপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি, চন্ডীগড় ইউনিয়নের তিন বারের সাবেক চেয়ারম্যান ইমাম হাসান ওরফে আবু চাঁনসহ ৫ নেতাকর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।
    নিহতের পরিবার, স্থানীয় এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দূর্গাপুর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য প্রয়াত জালাল উদ্দিন তালুকদারের ছোট ভাই দক্ষিণপাড়া এলাকা নিবাসী মৃত আলাল উদ্দিন তালুকদারের ছেলে দূর্গাপুর উপজেলা নবীন লীগের সভাপতি মোঃ কাওসার তালুকদারের সাথে এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দূর্গাপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি চন্ডীগড় ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ইমাম হাসান ওরফে আবু চাঁন এর ছেলের দিকে নাতি মোক্তারপাড়া এলাকা নিবাসী সু-সং ডিগ্রী কলেজ ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক মেহেদী হাসান সাহসের (২২) বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে একদল দুর্বৃত্ত মুখে কাপড় বেঁধে গত মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে পুলিশের মোড়ে নিজ মোটর সাইকেলের গ্যারেজের দোকানের সামনে কাওসারকে নৃশংসভাবে কুপিয়ে মারাত্মক জখম করে। তার ডাক চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে দুবৃর্ত্তরা স্থান ত্যাগ করে চলে যায়। মুমূর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে দ্রæত ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে  কর্তব্যরত চিকিৎসক কাওসারকে মৃত ঘোষনা করেন। এ ঘটনায় নিহতের পরিবার কাওসার তালুকদারকে হত্যার জন্য ছাত্রদল নেতা মেহেদী হাসান সাহসসহ ছাত্রদল নেতাকর্মীদের দায়ী করছেন। এ ঘটনার প্রতিবাদে এবং হত্যাকান্ডে জড়িতদের দ্রæত গ্রেফতারের দাবীতে আওয়ামীলীগ ও অঙ্গসংগঠনের ডাকে দূর্গাপুর উপজেলা সদরে হরতাল পালিত হচ্ছে।  
    এ ব্যাপারে দুর্গাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মিজানুর রহমানের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় দূর্গাপুর উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি, চন্ডীগড় ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ইমাম হাসান ওরফে আবু চাঁন, তার পুত্র জুলহাস, জুলহাসের পুত্র পরশসহ ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।