মোবাইল কোর্টে দুই ব্যবসায়ীর জরিমানা প্রশাসন ব্যবসায়ীর সভা

 মোবাইল কোর্টে দুই ব্যবসায়ীর জরিমানা প্রশাসন ব্যবসায়ীর সভা

মহসীন কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি ঃ  নিষিদ্ধ ঘোষিত পলিথিন ব্যবহার করার অভিযোগে মোবাইল কোর্টের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইউএনও আল-ইমরান রহুল ইসলাম কেন্দুয়া বাজারের দুই ব্যবসায়ীর কাছ থেকে দশ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। পরিবেশ সংরক্ষণ আইনে সোমবার দুপুরে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে বাজারের জুতা ব্যবসায়ী ইমরান হাসান ও ফল ব্যবসায়ী রাসেল মিয়ার কাছ থেকে দশ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হলে খবরটি ভিন্নভাবে প্রচার হয়। এতে মূহূর্তেই বাজারের সকল ব্যবসায়ীরা দোকান-পাট বন্ধ করে প্রতিবাদ জানাতে উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে জমায়েত হয়। পরে উত্তেজিত ব্যবসায়ীদের নিয়ে উপজেলা পরিষদ মিলানায়তনে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন ইউএনও আল-ইমরান রহুল ইসলাম। সভায় বক্তব্য রাখেন, কেন্দুয়া থানার ওসি মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান, বাজার কমিটির সভাপতি মোঃ এনামুল হক ভ‚ঞা ও অন্যান্য ব্যবসায়ীরা। দীর্ঘক্ষন সভা শেষে ওসি মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান জানান, নিষিদ্ধ ঘোষিত পলিথিন ব্যবহার বন্ধে আইন আইনের গতিতেই চলবে। যদি আইন অমান্য করে কেউ পলিথিন ব্যবহার করে ব্যবসা করতে চান. সেক্ষেত্রে সেই অবৈধ ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্টে দন্ড ও নিয়মিত মামলা হবে। তিনি বলেন, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দোকানে পলিথিন পেয়েই পরিবেশ সংরক্ষণ আইনে দুই ব্যবসায়ীর কাছ থেকে দশ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছেন। তবে এই জরিমানার খবরটি কে বা কারা ভিন্নভাবে প্রচার করে ব্যবসায়ীদের মধ্যে দেয় উত্তেজনা ছড়িয়ে দেয় । অপরদিকে বাজার কমিটির সভাপতি মোঃ এনামুল হক ভ‚ঞা বলেন, মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করে পলিথিন ব্যবহারের জন্য যাতে আমাদের আর কোন জরিমানা দিতে না হয় আমরা সেভাবেই শান্তিতে ব্যবসা করতে চাই। আমরা কোন প্রকার হয়রানির শিকার হতে চাই না। নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ইউএনও আল-ইমরান রুহুল ইসলাম বলেন, ব্যবসায়ীদের নিয়ে সভাটি অত্যন্ত ফলপ্রসু হয়েছে। পলিথিন ব্যবহারের বিষয়ে বলা হয়েছে যদি ঢাকা কিংবা ময়মনসিংহ থেকে কোন পন্যের সঙ্গে প্যাকিং করে পলিথিন আসে সেগুলো ব্যবসায়ীরা সংরক্ষন করে একসঙ্গে তা পুড়িয়ে দেবেন। যদি তা না করে কেউ অবৈধ ব্যবসা করতে চান সে ক্ষেত্রে পরিবেশ সংরক্ষনে মোবাইল কোর্টে শাস্তি হবে। সভা শেষে ব্যবসায়ীরা আবার সব দোকান পাট খুলে স্বাভাবিক ব্যবসা শুরু করেন।