কেন্দুয়ায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে তৃতীয় শ্রেনির ছাত্রের আত্মহত্যা

কেন্দুয়ায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে তৃতীয় শ্রেনির ছাত্রের আত্মহত্যা

এ কে এম আব্দুল্লাহ, নেত্রকোনা ঃ নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া উপজেলার মাস্কা ইউনিয়নের চক সাধক কোনাপাড়া গ্রামে রবিবার রাতে ঘরের ধর্ণার (আড়া) সাথে গলায় প্লাস্টিকের সুতলী পেছিয়ে মোশাররফ হোসেন (১২) নামক তৃতীয় শ্রেণিরএক ছাত্র আত্মহত্যা করেছে।
    মোশারফ হোসেন চক সাধক কোনাপাড়া গ্রামের আব্দুস সালামের পুত্র এবং আলমপুর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শেনীর ছাত্র।
     শিশুটির পিতা আব্দুস সালাম সাংবাদিকদের জানান, মোশাররফ কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল। গত রবিবার রাত ৯টার দিকে ঘরে কেউ না থাকার সুযোগে মোশাররফ চিকন প্লাস্টিকের সুতলী গলায় পেছিয়ে ঘরের চালের আড়ার সাথে ঝুলে আতœহত্যা করে। ঘরে ফিরে তিনি ছেলের খোঁজ খবর নিতে গিয়ে দেখেন সে ঘরের আড়ার সাথে ঝুলে আছে। এ সময় আমার ডাক চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক মোশাররফকে মৃত ঘোষনা করেন।
    খবর পেয়ে সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (কেন্দুয়া সার্কেল) মাহমুদুল হাসান ও কেন্দুয়া থানার ওসি মোহাম্মদ রাশেদুজ্জামান হাসপাতাল ও কোনাপাড়া গ্রামের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন তারা জানান, বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানার জন্য মৃতদেহ উদ্ধার করে সোমবার নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।