স্মরণ সভায় মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী ফজলুর রহমান খান ছিলেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন সূর্য সৈনিক

স্মরণ সভায় মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী ফজলুর রহমান খান ছিলেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শের একজন সূর্য সৈনিক

এ কে এম আব্দুল্লাহ, নেত্রকোনা ঃ মৎস্য ও প্রাণি সম্পদ প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খান খসরু এমপি বলেছেন, নেত্রকোনা জেলা আওয়ামীলীগের সুদীর্ঘ ২৮ বছরের সাবেক সভাপতি, সাবেক তিন বারের সংসদ সদস্য মরহুম এডভোকেট ফজলুর রহমান খান ছিলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের আদর্শের একজন সূর্য সৈনিক। তিনি বঙ্গবন্ধুর ডাকে জেল জুলুম হুলিয়াকে উপেক্ষা করে সাধারণ মানুষের অধিকার আদায় এবং প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলন সংগ্রামে লড়াকু সৈনিকের ভূমিকা পালন করেছেন। তিনি প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে ঘুরে ঘুরে দলকে সু-সংগঠিত করেছেন। প্রতিটি নেতাকর্মী সুখে দুঃখে পাশে থেকে সাহস জুগিয়েছেন। তার মৃত্যুতে আওয়ামীলীগের যে অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে, তা সহজে পূরণ হবার নয়। তিনি মরহুম ফজলুর রহমানের আদর্শকে বুকে ধারণ করে প্রতিটি নেতাকর্মীকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতিটি কর্মসূচী বাস্তবায়নে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান। তিনি গত শুক্রবার সন্ধ্যায় রৌহা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ আয়োজিত কুমড়ী ইউনিয়ন পরিষদ প্রাঙ্গণে মরহুম এডভোকেট ফজলুর রহমান খানের ১১তম মৃত্যু-বার্ষিকীর স্মারণ সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে এসব কথা বলেন।
     রৌহা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রশিদের সভাপতিত্বে সাধারণ সম্পাদক আতিকুর রহমান মুন্না’র পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মতিয়র রহমান খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মরহুমের কন্যা সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য হাবিবা রহমান খান শেফালী। স্মরণ সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক প্রশান্ত রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট ইফতেখার উদ্দিন তালুকদার মাসুদ,  সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক ভজন সরকার, দপ্তর সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম, শিক্ষা সম্পাদক গাজী মোর্তুজা হোসেন কামাল, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আতাউর রহমান মানিক, সাবেক যুবলীগের আহবায়ক অধ্যাপক ওমর ফারুক, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল খালেক তালুকদার, যুবলীগ নেতা এস বি খান শাহীন, জেলা যুবলীগের আহবায়ক মাসুদ খান জনি, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মারুফ হাসান খান অভ্র, জেলা যুব মহিলা লীগের সম্পাদক সৈয়দা বিউটী,  জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক দেওয়ান জনি প্রমূখ।